জানুন লবণের উপকারিতা, কী পরিমাণ লবণ খাওয়া শরীরের জন্য উপকারী

0
84
লবণের উপকারিতা

লবণ সম্পর্কে নতুন করে বলার কিছু নেই। কারণ আমরা সবাই লবণের উপকারিতা সম্পর্কে কম-বেশি জানি। লবণ আমাদের জীবনের সাথে কিভাবে উদ্ভূত ভাবে জড়িত, সেটা ছোট বেলায় বিভিন্ন গল্পের মাধ্যমে কিন্তু বোঝা যায়। লবণ নিয়ে ছোট বেলায় আমরা অনেক গল্প শুনেছি। গল্পের মধ্যেও লবণের উপকারিতার কথাটা কিন্তু প্রতীয়মান হয়। 

লবণ এর পুষ্টিগুণঃ

লবণ বিশেষ করে আমাদের রান্নার কাজে ব্যবহার করা হয়। আমরা অনেকেই জানি কাচা লবণ খাওয়া শরীরের পক্ষে যেমন ক্ষতি, কিন্তু লবণ একেবারে না খাওয়াও কিন্তু শরীরের জন্য ক্ষতি কারক। 

আমাদের হার্ট, লিভার, কিডনি ভালো রাখার জন্য লবণের কিন্তু অনেক কার্যকারিতা রয়েছে । লবণের মধ্যে যেসকল পুষ্টি গুণগুলো রয়েছে সেগুলো হচ্ছে………

ক্যালশিয়াম–৭০.১মিলিগ্রাম, আয়রন–১.০মিলিগ্রাম, পটাশিয়াম–২৩.৪মিলিগ্রাম, সোডিয়াম–১১৩১৭৪মিলিগ্রাম, সেলেনিয়াম–০.৩মাইক্রোগ্রাম, ফ্লুরাইড–৫.৮মাইক্রোগ্রাম, জিঙ্ক–০.৩মিলিগ্রাম, ম্যাগনেশিয়াম–২.৯মিলিগ্রাম, কপার–০.১মিলিগ্রাম, ম্যাঙ্গানিজ–০.৩মিলিগ্রাম, জল–০.৬গ্রাম।

শরীরের একটি অন্যতম গুরুত্ব পূর্ণ উপাদান হচ্ছে লবণ। আমাদের খাবারের স্বাদ অতুলনীয় রাখতে লবণের ভূমিকা অনস্বীকার্য। লবন ছাড়া আমরা কোন খাবারের কথা কল্পনাও করতে পারিনা।

লবণ আমাদের শরীরের যে যে উপকারগুলো করে থাকে সে বিষয়ে নিচে আলোকপাত করা হলো……

শরীরের ক্যালসিয়ামের ঘাটতি পূরণ করতে লবণের উপকারিতাঃ

যেহেতু লবণের মধ্যে প্রচুর পরিমাণে ক্যালসিয়াম রয়েছে তাই এটি আমাদের শরীরের হাড়ের কাঠিন্যতা মজবুত করতে এবং ক্যালসিয়ামের চাহিদা পূরণ করতে গুরুত্বপূর্ণ ভাবে কাজ করে থাকে। শরীরে যদি কোন কারণে লবণের অপর্যাপ্ততা তৈরি হয় তাহলে আমাদের শরীরে ক্যালসিয়ামের ঘাটতি দেখা যায়।

আয়রনের ঘাটতি পূরণ করতে লবণের উপকারিতাঃ

আমাদের শরীরে বিভিন্ন সময়ে আয়রনের স্বল্পতা দেখা যায়। যার কারণে রক্ত শূন্যতা সহ বিভিন্ন ধরনের সমস্যায় আমরা আক্রান্ত হয়ে থাকি। কিন্তু আপনি যদি খাবারের মধ্যে পর্যাপ্ত লবণ ব্যবহার করে থাকেন বা শরীর যদি পর্যাপ্ত পরিমাণে লবণ পেয়ে থাকে, তাহলে কিন্তু আমাদের শরীরে আয়রন জনিত সমস্যাগুলো থেকে আমরা দূরে থাকতে পারবো।

রক্ত চাপ নিয়ন্ত্রণের লবণের উপকারিতাঃ

শরীরে রক্ত চাপ নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্য পটাশিয়াম এর গুরুত্ব অনেক বেশি। কিন্তু আমরা অনেকেই জানিনা এই পটাশিয়াম নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্য লবণের উপকারিতা অনেক। তাই শরীরের রক্ত চাপ নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্য সঠিক পরিমাণে লবণ খাওয়া দরকার।

শরীরের সোডিয়ামের পর্যাপ্ততা ঠিক রাখার জন্য লবনের উপকারিতাঃ

লবণের মধ্যে সবচেয়ে বেশি যে উপাদানটি রয়েছে সেটা হচ্ছে সোডিয়াম।এই সোডিয়ামের অভাবে আমাদের শরীরে হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি বাড়ে, স্ট্রোকের সম্ভাবনা বাড়ে, পাশাপাশি আমাদের দৃষ্টিশক্তির সমস্যা দেখা যায়। 

তাই সঠিক পরিমাণে লবণ খাওয়ার মাধ্যমে আমরা এসমস্যাগুলো থেকে দূরে থাকতে পারব। যদি আমাদের শরীরে সোডিয়ামের পর্যাপ্ততা ঠিক থাকে।

সতর্কতাঃ

লবনের উপকারিতা আরো অনেক ধরনের রয়েছে, যা বলে শেষ করার নয়। 

কিন্তু উপকারিতার চেয়ে অপকারিতা বেশি পরিমাণে দেখা যাবে, যদি আপনি এটার অপব্যবহার করে থাকেন বা কাঁচা অবস্থায় লবণ খেয়ে থাকেন। তাই লবণের উপকারিতার কথা চিন্তা করে এর সঠিক ব্যবহারটায় আমাদের করা উচিত।   

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here