রসুনের গুণ ভালো করে জানুন , রসুনের উপকারিতা 

0
206

বন্ধুরা, যদি বলা হয় এক কোয়া রসুন খালি পেটে সেবন করলে প্রতিদিন দশটা রোগ থেকে দূরে থাকবেন!!!!!  তাহলে কি আপনি এক কোয়া রসুন খাবেন না?????

যাদের রসুনের উপকারিতা সম্পর্কে ধারণা একেবারেই নেই, আমার প্রতিবেদনটি আজকে শুধুমাত্র তাদের জন্য। 

বন্ধুরা, আমরা রসুন প্রতিনিয়ত কোনো না কোনো তরকারি বা খাবারের সাথে খেয়ে থাকি। কিন্তু যদি আমরা রসুনের উপকারিতার কথা সঠিকভাবে জানতে পারতাম, তাহলে প্রতিদিন ঘুম থেকে উঠে খালি পেটে কিছু খাওয়ার আগে অন্তত এক কোয়া রসুন খেয়ে নিতাম। 

তাহলে আর দেরি না করে আমরা জেনে নেই আমাদের শরীরের জন্য রসুন কি কি উপকার করে থাকে। 

রসুনের উপকারিতাঃ 

রসুনে বিদ্যমান এমন কিছু উপাদান রয়েছে, যা আমাদের শরীরের জটিল সব সমস্যার সমাধান নিমিষেই করতে পারে। হ্যাঁ বন্ধুরা, প্রাচীন আমলে গ্রিক, এবং মিশরীয় সভ্যতার মানুষেরা চিকিৎসার প্রধান হাতিয়ার হিসাবে এই ভেষজ উপাদান গুলি ব্যবহার করত। রসুন ঐ সকল উপাদানের মধ্যে অন্যতম ছিল।

বিভিন্ন ধরনের গুরুত্বপূর্ণ ভিটামিন জাতীয় উপাদান যা রসুনের মধ্যে রয়েছেঃ

রসুনের মধ্যে থাকা রাসায়নিক উপাদান সমূহ হলো থিয়ামিন (ভিটামিন বি১), রিবোফ্লাবিন (ভিটামিন বি২), নায়াসিন (ভিটামিন বি৩), প্যান্টোথেনিক অ্যাসিড (ভিটামিন বি৫), ভিটামিন বি৬, ফোলেট (ভিটামিন বি৯) ও সেলেনিয়াম।আপনারা জানলে অবাক হবেন রসুনের মধ্যে থাকা সেলেনিয়াম আমাদের শরীরে কতটা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে আজ রসুনের এমন কিছু উপকারী দিক আপনাদেরকে জানাবো যা শুনলে আপনারা অবাক না হয়ে পারবেন না। 

শরীরের ইমিউনিটি পাওয়ার বাড়াতে রসুনের কার্যকারিতাঃ

বর্তমান বিশ্বে যে ভাবে মহামারী ছড়িয়ে পড়েছে, এখানে থেকে বাঁচতে হলে আমাদের শরীরের ইমিউনিটি পাওয়ার অর্থাৎ রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোর খুব দরকার। শুনলে অবাক হবেন, প্রতিদিন সকালবেলা যদি খালি পেটে এক কোয়া রসুন খেতে পারেন, তাহলে আপনার শরীরের এন্টিঅক্সিডেন্ট এর পরিমাণ অনেক বেড়ে যাবে যা শরীরের ইমিউনিটি পাওয়ার বাড়াতে সক্ষম।

রক্তে কোলেস্টেরলের মাত্রা স্বাভাবিক রাখতে রসুনের ভূমিকাঃ

যাদের শরীরে অতিরিক্ত পরিমাণে কোলেস্টেরল বেড়ে গেছে, যার ফলে শরীরে শর্করার পরিমাণ বেড়ে গিয়ে ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হচ্ছেন। তাদের জন্য দরকার একেবারেই প্রাকৃতিক প্রতিষেধক। এই প্রতিষেধক আর কিছুই নয়, রসুন। কারণ রসুনের মধ্যে থাকা অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল উপাদান যা শরীরে শর্করার পরিমাণ বাড়াতে বাধা দেয়। যদি নিয়মিত খাবারের তালিকায় রসুন রাখতে পারেন,তাহলে আপনার শরীরে ডায়াবেটিস বেড়ে যাওয়ার প্রবণতা কমে যাবে।

রক্তের ফ্লো সঠিক পরিমাণে রাখতে রসুনের উপকারিতাঃ

যাদের শরীরে রক্তের ফ্লো বিভিন্ন কারণে কমে গিয়ে শরীরে রক্ত প্রবাহের গতি কমে যাচ্ছে, যার ফলে হার্ট অ্যাটাক, ডায়াবেটিকস, স্ট্রোক হওয়ার মতো ঝুঁকি আছে, তারা নিয়মিতভাবে রসুন খেতে পারেন। কারণ রসুনের মধ্যে থাকা জিংক এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট আমাদের শরীরে ব্লাডের  ফ্লো কে ত্বরান্বিত করে। যার ফলে রক্ত চলাচল স্বাভাবিক হয়। 

পুরুষের যৌন ক্ষমতা বাড়াতে রসুনের উপকারিতাঃ

ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হওয়ার কারণে পুরুষদের সেক্স পাওয়ার বা যৌন ক্ষমতা নষ্ট হয়ে যায়। এজন্য যদি আপনারা নিয়মিতভাবে রসুন খেতে পারেন তাহলে রসুনের মধ্যে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ও থায়ামিন জাতীয় উপাদান আপনার শরীরের ব্লাড সার্কুলেশন বাড়িয়ে দিয়ে পুরুষদের যৌন ক্ষমতা আবার ফিরিয়ে আনতে পারে। তাই যে সকল পুরুষদের এ ধরনের পুরুষ জনিত সমস্যা দেখা যায়, তারা প্রতিদিন রসুন খাওয়ার অভ্যাস গড়ে তুলুন। 

সতর্কতাঃ

রসুন আমাদের শরীরের জন্য উপকারী। কিন্তু প্রত্যেকটা উপকারী জিনিস তখনই উপকার নিয়ে আসে, যখন সেটা আমরা পরিমিত পরিমাণে সেবন করি। অতিরিক্ত পরিমাণে রসুন খাওয়া স্বাস্থ্যের জন্য অনেক ক্ষেত্রে আবার নেতিবাচক প্রভাব নিয়ে আসতে পারে। তাই অতিরিক্ত পরিমাণে গ্যাসের সমস্যা যাদের আছে তারা পরামর্শ করে রসুন খেতে পারেন। 

সুতরাং আজকের প্রতিবেদনটি যারা মনোযোগ দিয়ে পড়বেন আশা করি তারা রসুনের উপকারিতার কথা বুঝতে পেরে নিয়মিত রসুন খাওয়ার অভ্যাস গড়ে তুলবেন। রসুন এমন একটি উপাদান যা ক্যানসারের মতো দুরারোগ্য রোগ থেকে আমাদেরকে দূরে রাখতে সাহায্য করে।   

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here