মাত্র ৩ দিনে মুলতানি মাটি দিয়ে ব্রণ ও ব্রণের দাগ রোদে পোড়া দাগ দূর করে ত্বক ফর্সা করার উপায়

0
265
রূপচর্চায় মুলতানি মাটি

আজকে আমরা আলোচনা করব, রূপচর্চায় প্রসাধনী হিসেবে মুলতানি মাটির ব্যবহার। মুলতানি মাটি “মুলতান” শব্দটি থেকে নেওয়া হয়েছে।  মুলতান শব্দটি পাকিস্তানের একটি প্রদেশের নাম, ওই প্রদেশের বিশেষ এক ধরনের মাটি যার নাম মুলতানি মাটি, রূপচর্চার ক্ষেত্রে ব্যবহার করা হয়ে আসছে সেই অনেক আগে থেকে।বর্তমানে এটি রুপচর্চায় এক অনন্য নাম হয়ে দাডিয়েছে।

এখন আমরা জানবো মুলতানি মাটি ত্বকের যত্নে কিভাবে ব্যবহার করা হয়

ব্রণের দাগ দূর করার উপায়

রূপচর্চায় মুলতানি মাটির ব্যবহারঃ

  • মুলতানি মাটি ত্বকের জন্য অনেক উপকারী।
  • এটি ত্বকের অতিরিক্ত তেল বের করতে সাহায্য করে।
  • এছাড়া ব্ল্যাকহেডস থেকে আমাদের ত্বক কে  দূরে রাখে।
  • এটির ব্যবহারে ত্বক আরো অনেক মসৃণ দেখায়।
  • নিয়মিত এই মুইতানি মাটি যদি আমরা ব্যবহার করি আমরা প্রতিদিন আমাদের ত্বক নতুন করে খুজে পাব।

এলারজি সমস্যা দুর করে মুলতানি মাটিঃ

যাদের ত্বকে চুলকানি প্রবণতা আছে যা থেকে এলার্জির মত সমস্যার সৃষ্টি হতে পারে তারা নিয়মিত মুলতানি মাটির ব্যবহার করতে পারেন। এতে আমাদের ত্বকের চুল্কানি কমে যাবে।

ব্রণের সমস্যা থেকে মুক্তি দেয় মুলতানি মাটিঃ

ত্বকের উপর বা যদি মুখে কারো ব্রণের সমস্যা হয়ে থাকে আপনারা মুলতানি ব্যবহার করতে পারেন। সাথে কিছু মিশিয়ে। যেমন গোলাপ জল হলে ভালো হয়।

মুখের কালো দাগ ও গর্ত দূর করার উপায়

ত্বকে বয়সের ছাপ দূর করতে মুলতানি মাটির ব্যবহারঃ

গোলাপ জলের সাথে আমরা যদি এই মুলতানি মাটি প্রতিদিন ব্যবহার করি তাহলে আমাদের মুখের সমস্যা দূর হয়ে যাবে এবং মুখের বয়সের ছাপ দুর হয়ে যাবে।  

ব্রণ দূর করার উপায়

আমরা মুলতানি মাটি দিয়ে তৈরি কৃত কয়েকটি প্যাক আপনাদের সাথে শেয়ার করতে যাচ্ছি……

মুলতানি মাটির সাথে হলুদের গুঁড়াঃ

এই প্যাকটি যদি আপনারা ত্বকে ব্যবহার করেন তাহলে আপনাদের ত্বক অনেক বেশি চকচকে দেখাবে। তাহলে আমরা জেনে নিব এটি কিভাবে বানায়…

ত্বকে এলোভেরার উপকারিতা

প্রথমে আমাদের এককাপ মুলতানি মাটির দরকার হবে তার সাথে ১ চামচ হলুদের গুঁড়া, ১ চামচ গোলাপ জল, এই তিনটি উপকরণ একটি বাটিতে নিয়ে ভালোভাবে মিশিয়ে একটি প্যাক বানিয়ে ফেলুন। এরপর মুখ ভালো করে পরিষ্কার করে ধুয়ে এটি মুখের মধ্যে লাগাতে পারেন।  কমপক্ষে ১৫ থেকে ২০ মিনিটের জন্য এটি আপনারা মুখে লাগিয়ে রাখবেন।

এটা আপনারা গোসলের আগে করতে পারেন অথবা রাতে ঘুমাতে যাবার আগে ও ব্যবহার করতে পারেন। এটি যদি আপনারা সপ্তাহে তিন দিন ব্যবহার করতে পারেন তাহলে আপনারা আপনাদের প্রত্যাশিত রেজাল্ট পাবেন। এটি সব ধরনের ত্বকের জন্য উপযোগী।

মুলতানি মাটির সাথে দুধঃ

যাদের ত্বক শুষ্ক তারা মুলিতানি মাটির সাথে দুধ মিশিয়ে মুখে ব্যবহার করতে পারেন।দুধ শুষ্ক ত্বকে ভালো ভাবে কাজ করে। 

মুলতানি মাটির সাথে হলুদ ও দইঃ

দইয়ের মধ্যে ত্বক চকচকে করার ক্ষমতা রয়েছে। আর হলুদে আছে anti-inflammatory উপাদান যা ত্বকের স্বাস্থ্য উজ্জ্বল করে তোলার জন্য খুবই উপযোগী।

বেসন ও হলুদের ফেসপ্যাক

মুলতানি মাটির উপর ভিত্তি করে কি কি ফেইসপ্যাক ব্যবহার করা যায় এবং কোন ফেইসপ্যাক আমাদের কি কাজে লাগবে এ নিয়ে আমরা আপনাদের সাথে আলোচনা করেছি।

এছাড়াও মুলতানি মাটি মুখের যত্নের জন্য এমন একটি উপাদান যার গুনাগুন ব্যবহারের ক্ষেত্র গুলো বলে শেষ করা যাবে না। তাহলে বন্ধুরা উপরের দেওয়া ফেইস প্যাক গুলো আপনারা ব্যবহার করবেন এবং ফলাফল আমাদেরকে ফিডব্যাক জানাবেন। ধন্যবাদ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here