মাত্র ২ দিনে স্থায়ীভাবে ত্বক ফর্সা করতে টমেটোর এই ফেসিয়ালটি মিস করবেন না।

0
843
ত্বক ফর্সা করতে টমেটোর ফেসিয়ালটি

আমাদের ত্বকের যত্নে রূপচর্চায় বহুকাল ধরে টমেটো ব্যবহার হয়ে আসছে। গবেষকরা বিভিন্নগবেষণায় বলেছেন টমেটো খেলে নাকি ত্বকের গ্লো অনেকাংশে বেড়ে যায়। তবে বর্তমান সময়ে গবেষক এবং বিউটিশিয়ানরা বলেছেন যে টমেটো খাওয়ার চেয়ে স্ক্রিনে এপ্লাই করলে এর ফলটা আরো দ্রুত এবং বেশি পাওয়া যায়। বর্তমান সময়ে ত্বকের যত্নে ত্বককে উজ্জ্বল এবং ফর্সা করতে বিভিন্ন ধরনের ফেসিয়াল নারী-পুরুষ সবাই ব্যবহার করে আসছেন। অতি দ্রুত সময়ে স্থায়ীভাবে ত্বক ফর্সা করার জন্য টমেটোর লাইটনিং ফেসিয়াল অত্যন্ত কার্যকরী। আমাদের মধ্যে এমন অনেকেই আছেন যারা সুযোগ এবং সময়ের অভাবে পার্লারে গিয়ে ফেসিয়াল করিয়ে নিতে পারেন না। নিজেদের ত্বকের যত্নে আর পার্লারে যাওয়ার কোন দরকার নেই উজ্জ্বল এবং ফর্সা ত্বক পাবেন ঘরে বসেই টমেটোর ফেসিয়াল এর মাধ্যমে। তাই আমাদের এই আলোচনাটি সাজিয়েছি কিভাবে সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক উপায়ে ঘরে বসে টমেটোর ফেসিয়াল করবেন তার বিস্তারিত বর্ননা নিয়ে। তাহলে চলুন বন্ধুরা দেখে নেয়া যাক টমেটোর ফেসিয়াল করার ঘরোয়া পদ্ধতি।

মাত্র ২ দিনে স্থায়ীভাবে ত্বক ফর্সা করতে টমেটোর  ফেসিয়াল করার পদ্ধতিঃ

মাত্র ২দিনে স্থায়ীভাবে ত্বক ফর্সা করতে টমেটোর ফেসিয়াল করার জন্য  ধারাবাহিক কিছু পদক্ষেপ পালন করতে হবে নির্মাতা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হবে।

 ক্লিনজিংঃ

 ত্বক কে ফর্সা ও উজ্জ্বল করতে টমেটোর ফেসিয়াল এর প্রথম পদক্ষেপ হচ্ছে ক্লিনজিং বা ত্বক পরিষ্কার করা।

 আপনার ত্বকের জন্য উপযোগী পছন্দসই যেকোনো ক্লিনজার দিয়ে আপনার মুখ পরিষ্কার করে নিতে পারবেন।

 কাঁচা তরল দুধ দিয়েও মুখ ভালোভাবে পরিষ্কার করে নেওয়া যায়।  

স্ক্রাবিংঃ

টমেটো ফেসিয়াল এর দ্বিতীয় পদক্ষেপ ধাপ হচ্ছে স্ক্রাবিং।

একফালি টমেটো মাঝ বরাবর কেটে তাতে আধা চা-চামচ চিনি দিয়ে আপনার মুখে ভালোভাবে স্ক্রাব করে নিন।

এভাবে 5 থেকে 10 মিনিট চিনি গলে যাওয়া পর্যন্ত ভালোভাবে স্ক্রাব করুন।

এতে আপনার ত্বকের গভীরে থাকা ময়লা উঠে আসবে। এবং আপনার ত্বক কোমল ও মসৃণ হয়ে উঠবে।

স্টিমিংঃ

টমেটো ফেসিয়াল এর তৃতীয় ধাপ হচ্ছে স্টিমিং বা ত্বকে ভাপ লাগানো।

একটি চওড়া পাত্রে ফুটন্ত গরম পানি নিয়ে মাথার উপরে তোয়ালে দিয়ে পাত্রের উপরে ঝুকে পড়োন।

যেন পাত্র থেকে ওটা পানির ভাপ আপনার মুখে লাগে।

এভাবে 5 থেকে 7 মিনিট মুখে ভাপ লাগাতে হবে।

স্টিমিং এর ফলে আপনার ত্বকের লোমকূপ প্রসারিত হবে। ত্বক কোমল এবং সংবেদনশীল হয়ে উঠবে।

টমেটোর ফেসমাস্ক এপ্লাইঃ

ত্বক কে দ্রুত সময়ে ফর্সা করার জন্য টমেটো ফেসিয়ালের চতুর্থ ধাপ হলেও প্রধান ধাপ হচ্ছে ত্বকে ফেসমাস্ক এপ্লাই করা। বিভিন্ন ঘরোয়া প্রাকৃতিক উপাদান এর সাহায্যে টমেটোর ফেস মাস্ক তৈরি করা যায়।

উপকরন সমুহঃ

  • টমেটো পেস্ট আধা কাপ।
  • ৩ চা চামচ দই।
  • ২ চা চামচ মধু।
  • ২ চা চামচ গোলাপ জল।

ফেসমাস্ক তৈরির নিয়মঃ

  • একটি পরিষ্কার পাত্রে উপরে উল্লেখিত সমস্ত উপকরণ নিয়ে ভালোভাবে মিশিয়ে নিয়ে তৈরি করে নিন টমেটোর অত্যন্ত কার্যকরী ফেসপ্যাকটি।
  • ব্যবহারের পূর্বে ৫ মিনিট ফ্রিজ এ রেখে দিন।
  • এবার তুলা বা মুখের ব্রাশের সাহায্যে মিশ্রণটি আপনার মুখে ভালোভাবে স্ক্রাব করে লাগিয়ে নিন।
  • এবার আলতোভাবে আপনার হাতের সাহায্যে ক্লক এবং এন্টি ক্লক স্টাইলে ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে  10 থেকে 15 মিনিট ভালোভাবে ম্যাসাজ করে নিন।
  • এতে করে ফেসমাস্কের উপাদানসমূহ আপনার ত্বকে ভালোভাবে প্রভাব ফেলতে পারবে।
  • তারপর ৩০ থেকে ৪০ মিনিট ওভাবে বসে থাকুন।
  • চোখের ওপর শসার কাটা স্লাইস অথবা তুলা গোলাপ জলে ভিজিয়ে চোখের উপর রেখে দিতে পারবেন।
  • এবার ফেসমাস্কটি ভালোভাবে শুকিয়ে গেলে, একটি পাত্রে গরম জল নিয়ে তাতে তুলো ভিজিয়ে মুখে লাগিয়ে আস্তে আস্তে টমেটোর ফেসমাস্ক এর আস্তরণ ঘষে ঘষে তুলে নিন।
  • সম্পূর্ণভাবে তোলা হয়ে গেলে ঠান্ডা জলে মুখ ধুয়ে নিয়ে ত্বকে ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে নিন।

ময়েশ্চারাইজিংঃ

দ্রুত সময়ে ফর্সা ত্বক পেতে টমেটোর ফেসিয়াল এর শেষ ধাপ হচ্ছে ময়েশ্চারাইজিং। স্টিমিং এর পর আপনার ত্বক অনেকটা সংবেদনশীল এবং স্পর্শকাতর হয়ে যায় তাই আপনার ত্বককে ময়েশ্চারাইজ করে নিতে হবে।

আপনি আপনার ত্বকের জন্য উপযোগী যেকোনো ময়েশ্চারাইজার ক্রিম ব্যবহার করতে পারেন।

প্রাকৃতিক ময়েশ্চারাইজার হিসেবে মধু ব্যবহার করতে পারেন।

অ্যালোভেরার জেল ময়েশ্চারাইজার হিসেবে অত্যন্ত কার্যকরী।

বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ

টমেটো ফেসিয়াল এ ব্যবহৃত টমেটো বা অন্যকোন উপকরণ আপনার ত্বকের জন্য এলার্জিক হলে তার ব্যবহার থেকে সম্পূর্ণভাবে বিরত থাকুন।

ফেসমাস্ক এর মিশ্রন যেদিন তৈরি করবেন সেদিনই ফেসিয়াল করে নিবেন। ফ্রিজে রেখে দেরিতে ব্যবহার করবেন না।

ফেসিয়ালের পর অন্তত 24 ঘন্টা কোন ধরনের কেমিক্যালযুক্ত মেকআপ করবেন না।

আপনার ত্বকের ব্রণ খোঁচাবেন না।

মুখে হাত দেয়ার সময় হাত পরিষ্কার করে নিবেন।

ফেসিয়ালের পর অন্তত দু’দিন কড়া রোদে যাবেন না।

ফেসিয়াল ত্বকে লাগিয়ে রোদে অথবা ধুলাবালি যুক্ত স্থানে যাবেন না।

টমেটো আমাদের ত্বকের জন্য অত্যন্ত কার্যকরী। তাই মাত্র একবার ব্যবহারে স্থায়ীভাবে ফর্সা এবং উজ্জ্বল ত্বক প্রাপ্তির জন্য টমেটো ফেসিয়াল ঘরে বসেই করে নিতে পারবেন আমাদের নির্দেশিত পন্থা অনুসরণ করে। তাই দ্রুত সময়ে প্রাকৃতিক উপায়ে ঘরোয়া ভাবে স্থায়ীভাবে ফর্সা ত্বক পেতে মাসে অন্তত একবার টমেটোর ফেসিয়াল করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here