ব্রণ দূর করতে তৈলাক্ত ও ব্রণ প্রবণ ত্বকের জন্য কলার ফেসপ্যাক

0
51
ব্রণ দূর করার উপায়

খাবার ফল হিসেবে কলা সবার কাছে পরিচিত। এর পুষ্টিগুণ ও উপকারিতা রয়েছে অনেক। কলার অনেকগুলো উপকারিতার মধ্যে অন্যতম হলো এটি ত্বকের যত্নে অনেক বেশি উপকারি। কলা ত্বককে ফর্সা করে এবং ত্বক ফর্সা করার পর ত্বকের ফিরে পাওয়া উজ্জ্বলতা ধরে রেখে ত্বকের উজ্জ্বলতা হারিয়ে যেথে দেয় না । আর কলার মধ্যে থাকা ভিটামিন সি ত্বকে কোলাজেন বৃদ্ধি করে, ত্বকের অতিরক্ত তৈল নিয়ন্ত্রণ  করে ত্বককে তৈল মুক্ত রাখে । এছাড়াও কলা ত্বক হতে ব্রণ ও ব্রণের দাগ সহ সকল ধরণের দাগকে দূর করে দিয়ে ত্বককে ব্রণ ও দাগ মুক্ত রাখে। কলা ত্বককে গভীর হতে ময়শ্চারাইজ করে ত্বককে নরম ,কোমল ও আকর্ষণীয় করে তুলে ।

ব্রণ দূর করার উপায়

কলার এসকল গুণাগুণের কারণে এটি ত্বকে নিশ্চিন্তে ব্যবহার করা যায়। আর এসক গুণের কথা মাথায় রেখে আজকে আমি আপনাদের ব্রণ দূর করতে তৈলাক্ত ও ব্রণ প্রবণ ত্বকের জন্য কলার ফেসপ্যাক শেয়ার করছি । এগুলো ব্যবহার করলে ত্বক হতে ব্রণ ও ব্রণের দাগ দূর হয়ে ত্বক হবে উজ্জ্বল,ফর্সা,মসৃণ ও দীপ্তময় ।

চলুন ফেসপ্যাকগুলো তৈরি করে নিই।

১. বেসন,মধু ও কলার ফেসপ্যাকঃ

ব্রণ প্রবণ ত্বকের জন্য কলার ফেসপ্যাক

এই ফেসপ্যাকটি ত্বককে ফর্সা করার সাথে সাথে ত্বকের ব্রণ ও ব্রণের দাগ দূর করার জন্য খুব বেশী কার্যকরভাবে ভূমিকা পালন করবে। আর খুব অল্প সময়ের মধ্যে মাত্র এই ফেসপ্যাকটি তৈরি করে ব্যবহার করতে পারবেন  ।

ফেসপ্যাক তৈরির প্রয়োজনীয় উপদানঃ

  • কলার পেষ্ট  –  ২ টেবিল চামচ
  • বেসন          –  ১ টেবিল চামচ
 ত্বক ফর্সা করার উপায়
  • মধু               –  ১ চা চামচ
  • টক দই          –  ২ টেবিল চামচ

ফেসপ্যাক তৈরী ও ব্যবহার পদ্ধতিঃ  

ধাপঃ

  • প্রথমে একটি পাকা কলা নিয়ে একে টুকরো করে কেটে ব্লান্ড করে নিন।
  • এরপর একটি পরিস্কার কাঁচের বাটীতে সবগুলো উপাদান একসাথে নিয়ে খুব ভাল করে মিশিয়ে নরম পেষ্ট তৈরী করুণ।
  • এবার মুখ পরিস্কার করে সারা মুখে প্যাকটি লাগিয়ে ২০ মিনিট অপেক্ষা করুন।
ত্বকের দাগ দূর করার ফেসপ্যাক
  • ২০ মিনিট পর ঠান্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন ।

কাজ করার কারণঃ

বেসনঃ

বেসনের মধ্যে আছে প্রোটিন, আয়রন , জিংক, ভিটামিন ই ও ভিটামিন সি সহ নানা উপাদান।

কলার ফেসপ্যাক

এই উপাদান গুলো ত্বক হতে অতিরিক্ত তৈল শোষণ করে ও রোদে পুড়া ভাব দূর করে ত্বককে ভিতর থেকে পরিস্কার করে ফর্সা করে তুলে ।  

মধুঃ

মধুর মধ্যে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টি-ব্যাক্টেরিয়াল প্রোপার্টি রয়েছে ।

তৈলাক্ত ত্বকের জন্য কলার ফেসপ্যাক

মধুর অ্যান্টি-ব্যাক্টেরিয়াল প্রোপার্টি ত্বকে ব্রণসৃষ্টকারী জীবাণু ও অন্যান্য জীবাণুকে ধ্বংস করে ত্বককে জীবাণু মুক্ত রাখে।

টক দইঃ

দইয়ের মধ্যে আছে ল্যাকটিক এসিড যা ত্বক হতে মৃত কোষ সরিয়ে ত্বককে উজ্জ্বল করে । এছাড়াও দইয়ের মধ্যে থাকা ব্যাকটেরিয়া ত্বক হতে ব্রণ সৃষ্টিকারী জীবাণু ও অন্যান্য জীবাণুকে মেরে ত্বককে ব্রণ মুক্ত করে।

ত্বক ফর্সা করার উপায়

এছাড়াও দইয়ের মধ্যে আরো আছে ভিটামিন বি ৫ যা ত্বক হতে সমস্ত রকমের দাগকে দূর করে দিয়ে ত্বককে দাগমুক্ত রাখে।

নোটঃ

 ১) ভাল ফলাফলের জন্য সপ্তাহে ২ বার ব্যবহার করুন ।

২) প্যাক ঠোঁটে ও চোখে লাগাবেন না।

২. মুলতানি মাটি ও কলার ফেইসপ্যাকঃ

ব্রণ দূর করার উপায়

মুলতানি মাটি কলার ফেইসপ্যাকটি ত্বক হতে সমস্ত তৈল শোষণ করে নিয়ে ত্বককে তৈল মুক্ত ও জীবাণু করে ত্বককে ফর্সা করে তুলতে খুব বেশী কার্যকর ।

ফেসপ্যাক তৈরীর প্রয়োজনীয় উপাদানঃ

মুলতানি মাটির ফেসিয়াল
  • পাকা কলার পেষ্ট  – ২ টেবিল চামচ
  •  মুলতানি মাটি      –১ টেবিল চামচ ও
  • লেবুর রস             – ১ টেবিল চামচ

ফেসপ্যাক তৈরী ও ব্যবহার পদ্ধতিঃ 

ধাপঃ

  • সবার প্রথমে একটি পাকা কলাকে ব্লান্ড করে কলার পেষ্ট তৈরী করে নিন।
  • এবার একটি পরিস্কার বাটিতে সবগুলো উপাদান নিয়ে ভাল করে মিশিয়ে নরম পেষ্ট তৈরী করুন।
  • মুখ পানি দিয়ে পরিস্কার করে ধুয়ে ঠোঁট ও চোখ ছাড়া সারা মুখে প্যাকটি লাগান।
তৈলাক্ত ত্বকের জন্য কলার ফেসপ্যাক
  • প্যাকটি লাগিয়ে ২০ মিনিট অপেক্ষা করুন।
  • ২০ মিনিট পর কুসুম গরম পানিতে তুলা বা সুতির কাপড় ভিজিয়ে প্যাকটি আস্তে আস্তে মুছে তুলে নিন।
  • প্যাক তুলার পর ঠান্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন ।

কিভাবে কজ করবেঃ

মুলতানি মাটিঃ

মুলতানি মাটি ত্বক হতে অতিরিক্ত তৈল, ময়লা শোষণ করে নিয়ে ত্বককে ভিতর থেকে পরিস্কার করে । এটি ত্বকের মৃত কোষ সরিয়ে ফেলে ও ত্বককে জীবাণুর আক্রমণের হাত থেকে রক্ষা করে ।

লেবুর রসঃ

লেবুর মধ্যে প্রচুর পরিমাণে প্রাকৃতিক ব্লিচিং প্রোপার্টি আছে যা ত্বককে ফর্সা ও উজ্জ্বল করতে সাহায্য করে ।

তৈলাক্ত ত্বকের জন্য কলার ফেসপ্যাক

লেবুতে আরো আছে সাইট্রিক এসিড ও ভিটামিন সি যা ত্বকে কোলাজেনের উৎপাদন বাড়িয়ে ত্বককে অতি মাত্রায় ফর্সা করে তুলে ।

নোটঃ

 ১) ভাল ফলাফলের জন্য সপ্তাহে ৩ বার ব্যবহার করুন ।

২) প্যাক ঠোঁটে ও চোখে লাগাবেন না।

আপনারা ত্বক হতে ব্রণ ও ব্রণের দাগ সহ সকল ধরণের দাগ দূর করার জন্য এই প্যাকগুলো ব্যবহার করতে পারেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here