ডাবের পানির উপকারিতা

0
62

সারাদিনের ব্যস্ততায় পথ চলতে শরীরে ঘামের সঙ্গে প্রয়োজনীয় পানি বেরিয়ে যায়। ।ফলে পছুর পরিমাণে ক্যালরি ক্ষয় হয়। এতে শরীর নিস্তেজ হয়ে পড়ে।

এমন পরিস্থিতিতে শরীরকে চাঙ্গা করতে ডাবের পানি জুড়ি নেই । বাজারে তরল পানীয়গুলো জোর প্রচারণা চালিয়ে গেলেও ডাবের পানির নানান উপকারিতা থাকায় স্বাস্থ্যগত দিক বিবেচনায় গরমে এখনো সবার প্রথম পছন্দ ডাবের পানি।

শুধুমাত্র শরীরে ক্যালরির অভাব পূরন করা নয় ,শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে তোলা সহ ডাবের পানিতে আছে নানা উপকারিতা ও পুষ্টিগুণ ।

ডাবের পানির পুষ্টি উপাদানঃ

বিভিন্ন আকার ভেদে কচি ডাবে মধ্যে ২০০ থেকে ১০০০ মিলিলিটার পানি থাকে পারে। এর ৯৫ শতাংশই পানি। আর স্থানভেদে সোডিয়াম, পটাশিয়াম ও অন্যান্য লবণের পরিমাপ একেক রকম।   

আর প্রতি ১০০ গ্রাম ডাবের পানিতে থাকে

খনিজ পদার্থ ০.৩ গ্রাম

আমিষ ২.৩ গ্রাম

শর্করা ২.৪ গ্রাম.

চর্বি ০.১ গ্রাম,

ক্যালসিয়াম ১৫ মিলিগ্রাম,

ফসফরাস ০.০১ মিলিগ্রাম,

আয়রন ০.১ মিলিগ্রাম,

ভিটামিন বি ১-০.১১ মিলিগ্রাম,

ভিটামিন-বি২ ০.০২ মিলিগ্রাম,

ভিটামিন-সি ৫ মিলিগ্রাম ও

খাদ্যশক্তি ২৩ কিলোক্যালরি

ডাবের পানির উপকারিতাঃ

১। ত্বকে তারণ্য উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করেঃ

ডাবের পানিতে সাইটোকিনিস নামে অ্যান্টি-এজিং উপাদান থাকায় এটি ত্বকের উপর বয়সের ছাপ পড়তে দেয় না।  তাই নিয়মিত ডাবের পানি পান করলে মুখে ত্বক হতে বয়সের ছাপ দূর হয়ে ত্বকে তারণ্য উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি পায় । 

২। হৃদরোগের ঝুঁকি কমায়ঃ  

ডাবের পানি আমাদের শরীরের রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে থাকে। ডাবের পানির প্রাকৃতিক মিনারেল শরীরের রক্ত সঞ্চালন স্বাভাবিক রাখে এবং সেই সাথে উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা নিয়ন্ত্রণ করে থাকে । তাই ডাবের পানি পান করলে  হৃদরোগের ঝুঁকি কমে যায় ।

৩। দেহে ক্যালসিয়াম ও পটাশিয়ামের অভাব পূরণ করেঃ

দেহে ক্যালসিয়াম ও পটাশিয়ামের অভাব হলে এবং নানা ধরনের অসুখ-বিসুখ হলে ডাক্তাররা ডাবের পানি পান করার পরামর্শ দিয়ে থাকেন ।

কারণ দেহে পানি ও খনিজ পদার্থের ঘাটতি দেখা দিলে ডাবের পানি এই ঘাটতি পূরণ করে ।  

৪। শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়ঃ  

সুস্থ থাকার জন্য মানুষের শরীরে সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানো। ডাবের পানির মধ্যে রাইবোফ্লবিন, নিয়াসিন, থিয়ামিন ও পাইরিডোক্সিন আছে ।   

তাই ডাবের পানি প্রতিদিন পান করলে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পায় ।

৫। ওজন হ্রাস করতে সাহায্য করে থাকেঃ

ডাবের পানিতে কণ ড়োকোম ফ্যাট না থাকায় ওজন কমানোর জন্য ডাবের পানি দারুন কাজ করে থাকে। যারা খুব সহজে নিজেদের ওজন হ্রাস করতে চান তারা নিয়মিত ডাবের পানি পান করুন ।  

৬। হজম শক্তি বৃদ্ধি করে কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করেঃ   

ডাবের পানি বদহজমে মত সমস্যা দূর করতে সাহায্য করে থাকে। বদহজমের কারণে কোষ্ঠকাঠিন্যের মতো সমস্যা

তাই নিয়মিত ডাবের পানি পান করলে হজম শক্তি বৃদ্ধি পাবে আর কোষ্ঠকাঠিন্যের মতো সমস্যা খুব সহজেই দূর হবে।

স্বাস্থ্যকে ফিট রাখতে এবার প্রতিদিন ১ টি করে ডাবের পানি পান করুন ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here