জয়তুন তেলের উপকারিতা,জেনে নিন ব্যবহারের নিয়ম

0
698
জয়তুন তেলের উপকারিতা

প্রকৃতি আমাদের জন্য কি কি নিয়ামত রেখেছে তা আমরা অনেকেই কিন্তু জানিনা। মানুষ বেঁচে থাকার জন্য সম্পূর্ণভাবে প্রকৃতির উপর নির্ভরশীল। প্রকৃতিতে পাওয়া এমন সব বিস্ময়কর জিনিস যাদের উপকারিতার কথা বলে শেষ করা যাবেনা। 

এমনই একটি উপকারী উপাদান হল জয়তুন তেল। জয়তুন তেল বিশেষ করে জয়তুন নামক ফল থেকে পাওয়া যায়। যে ফল দেখতে অনেকটা জলপাইয়ের মত মনে হলেও এর গুনাগুন এবং উপকারিতা সম্পূর্ণ আলাদা।

আজ আপনাদের সাথে জয়তুন তেলের উপকারিতা নিয়ে আলোচনা করতে যাচ্ছি।

জয়তুন তেল কিভাবে পাওয়া যায়???

জয়তুন ফল নিয়ে অনেক ধরনের কথা জানা যায়। বিশেষ করে ইসলাম ধর্মে জয়তুন ফল কে অনেক বড় করে দেখানো হয়েছে।  জয়তুন ফল গাছের পাতাকে অনেকেই শান্তির প্রতীক বলে অভিহিত করেন। এবং জয়তুন ফলকে অনেক ধরনের ভেষজ ওষুধ হিসাবে সেবন করা হয়। 

জয়তুন গাছ বিশেষ করে ভূমধ্যসাগরীয় অঞ্চলে বেশি পরিমাণে পাওয়া যায়। সারাবিশ্বে জয়তুন তেলের চাহিদা রয়েছে। জয়তুন ফল থেকে জয়তুন তেল তৈরি করা হয়ে থাকে। জয়তুন ফল আকারে বেশি বড় হয় না। 

চলুন জয়তুন তেলের উপকারিতা ও ব্যবহারের নিয়ম জেনে নিই।

জয়তুন ফল আমাদের শরীরে ভিটামিন এর অভাব পূরণ করেঃ 

অনেক সময় দেখা যায় বাচ্ছাদের শরীরে ভিটামিন ই এর অভাব হয়ে থাকে। এক্ষেত্রে আপনি যদি বাচ্চাদের জয়তুন তেল খাওয়ান  বা জয়তুন ফল খাওয়াতে পারেন, তাহলে কোন ধরনের ওষুধ ছাড়া আপনার বাচ্চা সুস্থ হয়ে উঠবে। কারণ জয়তুন ফলে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ও ক্যালসিয়াম বাচ্চাদের স্বাভাবিক বৃদ্ধিতে যথেষ্ট ভূমিকা রাখে।

ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য জয়তুন তেল যেন এক মহা ঔষধঃ

যারা ডায়াবেটিসে আক্রান্ত বা যাদের শরীরে কোলেস্টেরলের পরিমাণ বেড়ে গেছে, তারা নিয়মিত ভাবে যদি জয়তুন তেল খেতে পারেন, তাহলে এটির মধ্যে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট আপনার শরীরে খারাপ কোলেস্টেরল কমিয়ে ফেলতে কাজ করবে।

পিরিয়ড চলাকালীন সময়ে মেয়েদের জয়তুন তেল খাওয়ার উপকারিতাঃ 

অনেক মেয়েদের ক্ষেত্রে দেখা যায় পিরিওডে অতিরিক্ত ব্লিডিং হওয়ার কারণে পিরিওড পরবর্তী সময়ে তারা রক্ত শূন্যতায় ভোগে। 

তাই যাদের এই ধরনের সমস্যা দেখা যায়, তারা তাদের খাবারের তালিকায় জয়তুন তেল রাখতে পারে। 

কারণ জয়তুন তেল রক্ত শূন্যতা পূরণ করতে খুব গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। এর মধ্যে থাকা ভিটামিন বি কমপ্লেক্স ও আয়রন, ক্যালসিয়াম আমাদের রক্তশূন্যতা রোধ করে।

শরীরে বিভিন্ন ধরনের বলিরেখা দূর করতে বা শরীরে স্কিন সফট রাখতে জয়তুন তেলের উপকারিতাঃ 

বিশেষ করে বাচ্চা প্রসবের পরে মায়েদের পেটে যে দাগ পরে যায় বা চামড়ায় বলিরেখা দেখা যায়,তা একেবারে শরীর থেকে নির্মূল করে ফেলতে আপনারা প্রতিদিন জয়তুন তেল মালিশ করুন।  জয়তুন তেল মালিশ করার মাধ্যমে আপনার স্কিন দেখতে খুবই আকর্ষণীয় লাগবে।

চুলের যত্নে জয়তুন তেলের উপকারিতাঃ

যাদের চুলের গোড়া দুর্বল, চুল ঝরে পড়ে যায়, তারা  জয়তুন তেল ব্যবহার করে ভালো উপকার পাবে। এক্ষেত্রে জয়তুন তেল হাতের তালুতে নিয়ে মাথার তালুতে ম্যাসাজ করলে চুলের গোড়া শক্ত হবে।  ফলে রক্ত সঞ্চালনের প্রবণতা বাড়বে, চুল ঝরে পড়বে না। পাশাপাশি সুন্দর ও লম্বা হবে।

অতএব বন্ধুরা, আশাকরি উপরে জয়তুন তেলের উপকারিতার কথা শুনে আপনারা আপনাদের সমস্যা অনুযায়ী জয়তুন তেল ব্যবহার করার প্রতি আগ্রহী হবেন। এবং এই তেল আমাদের স্বাস্থ্যের ক্ষেত্রে, ত্বকের ক্ষেত্রে, এবং ব্যবহারের ক্ষেত্রে অনেক বেশি উপকারী।  

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here