গোসলের আগে ৫ মিনিট লাগিয়ে নিন চেহারা হবে হীরের থেকেও ঝকঝকে ফর্সা

0
5679
দুধের চাইতেও ধবধবে ফর্সা ত্বক পাওয়ার উপায়

আজকে আমি আপনাদের জন্য নিয়ে এসেছি আরও একটি অসাধারণ সহজ রেমিডি। এই রেমেড়িটি সঠিকভাবে তৈরি করে ব্যবহার করলে ত্বক হতে ব্রণের দাগ ,রোদেপুড়া কালোদাগ ও বয়সের ছাপ দূর হয়ে যাবে ।  এর ব্যবহারে ত্বক প্রাকৃতিকভাবে গ্লোয়িং হয়ে উঠবে  এবং এটি ত্বককে দুধের মতো ফর্সা করে দিবে । বন্ধুরা, যদি আপনারা দুধের মত ফর্সা, উজ্জ্বল, গ্লোয়িং ও ক্লিন ত্বক পেতে চান তাহলে এই ফেইসপ্যাকটিকে একবার হলেও ব্যবহার করে দেখবেন।  

বন্ধুরা চলুন রেমেড়িটি তৈরি করে নিই।

এর জন্য আমাদের প্রথমেই প্রয়োজন কাঁচা তরল দুধ । কাঁচা তরল দুধ আমাদের ত্বকের জন্য খুবই উপকারি। দুধ আমাদের ত্বক হতে ডার্ক স্পট,ব্রণের দাগ  এবং রোদে- পুড়াদাগকে দূর করে ত্বককে উজ্জ্বল ও ফর্সা করতে সাহায্য করে।     

  • এখন একটি বাটিতে ১ কাপ কাঁচা তরল দুধ নিব
  • এরসাথে এড করব ২ চামচ চাল

চালের মধ্যে ভরপুর মাত্রায় অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট থাকে যা আমাদের ত্বকের এইজিং প্রসেস স্লো করে দেয়। যার ফলে ত্বক হতে প্রায় 10 বছর পর্যন্ত বয়সের ছাপ কমে যায় আর ত্বক উজ্জ্বল টানটান মসৃণ হয়।

এবার চালকে দুধের মধ্যে ৩০ মিনিট ভিজিয়ে রাখতে হবে।

চলুন এর মধ্যে ২০ গ্রাম মত বীটরুট নিয়ে এর খোসা ছাড়িয়ে নিই।   

বীটরুট ত্বক ফর্সা করার পাশাপাশি ত্বকের মধ্যে একটি দুধে আলতা আভা এনে দিবে । যখন আপনারা এটি ত্বকে ব্যবহার করবেন তখনি বুঝতে পারবেন এটি রংকে ফর্সা করার ম্যাজিকাল একটি প্রাকৃতিক উপাদান।    

 ৩০ মিনিট পর ভেজানো চাল দুধ সমেত ব্লান্ডারের মধ্যে নিয়ে নিন । এরপর এরসাথে বীটরুট এড করে এদেরকে একসাথে ব্লেন্ড করে নিন।

ব্লেন্ড করে মিশ্রণটি একটি বাটির মধ্যে নিয়ে নিব । বন্ধুরা দেখুন কি সুন্দর পেষ্ট তৈরি হয়েছে।

এবার এই পেষ্টের সাথে এড করে নিব

  • ১ চামচ এলোভেরা জেল ও
  • ২,৩ ড্রপ ক্যাস্টর অয়েল ।  

এবার সবগুলো উপাদান একসাথে মিশিয়ে নিন।

বন্ধুরা , এটি প্রথমবার ব্যবহারে আপনাদের ত্বকের রং কয়েক গুণ বেড়ে যাবে।  আমার বিশ্বাস , আপনারা এই প্যাকটিকে একবার ব্যবহার করলে অন্যসব রেমেড়ি ব্যবহার করা বাদ দিয়ে দিবেন ।   উপাদানগুলো মিশে নরম পেষ্ট তৈরি হয়ে গেলে ব্রাশের সাহায্যে চেহারায় এইভাবে apply করুণ।

আপনারা ত্বককে দ্রুত ফর্সা করার জন্য এই প্যাকটিকে সপ্তাহে ২,৩ ব্যবহার করতে পারেন ।  প্যাকটি মুখে লাগিয়ে পুরুপুরি শুকিয়ে আসা পর্যন্ত অপেক্ষা করুণ।    প্যাকটি পুরুপুরি শুকিয়ে গেলে ত্বক পরিস্কার জল দিয়ে ধুয়ে নিন।

বন্ধুরা, আপনারা এই প্যাকটি ব্যবহার করার পর অসাধারণ পার্থক্য লক্ষ্য করবেন ।  এই প্যাকটিকে বাড়িতে অবশ্যই ট্রাই করুণ ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here