ত্বক সুন্দর ও স্বাস্থ্য ভাল রাখতে চালের গুঁড়ার উপকারিতা ও ব্যবহার জেনে নিন

0
74
চালের গুঁড়ার উপকারিতা

হঠাৎ যদি দেখেন বাহির থেকে এসে আপনার চেহারা খুবই তৈলাক্ত হয়ে গেছে এবং আয়নার সামনে নিজেকে দেখে খুবই বাজে লাগতেছে, তখনই আপনি সহজ একটি মাধ্যমে আপনার মুখেই এই তৈলাক্ত ভাব দূর করতে পারবেন। আর সেই সহজ মাধ্যম হলো চালের গুড়া। 

 চালের গুঁড়ার উপকারিতা

আর একসাথে যদি শরীরের ফিটনেস বজায় রাখতে চান, তাহলে আপনি রুপ পরিচর্চা করার পাশাপাশি শরীর পরিচর্যা করতে চালের গুড়া ব্যবহার করতে পারবেন।

তাই আজকে আমার আলোচনার বিষয় হলো ত্বক এবং শরীর চর্চার ক্ষেত্রে চালের গুড়ার উপকারিতা কি কি ????

চালের গুড়ার উপকারিতাঃ

প্রথমেই বলেছি, চালের গুড়া আমাদের স্বাস্থ্যের ক্ষেত্রে যতটা উপকারী ত্বক পরিচর্যার ক্ষেত্রে তার চেয়ে বেশি উপকারী।

চালের গুঁড়ার উপকারিতা ও ব্যবহার জেনে নিন

ঠিক সে কারণে বর্তমানে ত্বক পরিচর্যায়  এবং শরীরের ফিটনেস বজায় রাখার ক্ষেত্রে চালের গুড়ার ব্যবহার দিন দিন জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে।

শরীরের ফ্যাট কমাতে চালের গুড়ার উপকারিতাঃ

সচরাচর দেখা যায় বাংলাদেশ-ভারত বা এশিয়া উপমহাদেশে  ভাত এবং রুটিকে প্রধান খাদ্য হিসেবে গ্রহণ করা হয়ে থাকে।

কিন্তু অধিক স্বাস্থ্য সচেতন মানুষেরা ভাতের চেয়ে চালের রুটি খাওয়া কে প্রাধান্য দিয়ে থাকে।

৫ দিন ৫ কেজি ওজন কমানোর উপায়

কারণ ভাত খেলে আমাদের শরীরে শর্করা বা কার্বোহাইড্রেট এর পরিমাণ বেড়ে যায়। কিন্তু আপনি যদি সকালে এবং রাতে চালের রুটি খান, তাহলে আপনার শরীরে ফ্যাট ব্যালেন্স এর মধ্যে থাকবে। 

অতিরিক্ত ফ্যাট এর কারণে আপনার ডায়াবেটিস বা বহুমূত্র রোগ হওয়া থেকে বেঁচে থাকতে পারবেন। 

ত্বক পরিচর্যা করার ক্ষেত্রে চালের গুড়ার উপকারিতাঃ

ত্বক সুন্দর ও স্বাস্থ্য ভাল রাখতে চালের গুঁড়ার উপকারিতা ও ব্যবহার জেনে নিন

বন্ধুরা,চাল থেকে শুধু ভাত ই হয়না, চালের গুঁড়ো দিয়ে ত্বকের ভালো যত্ন নিতে পারি। যেমন……

প্রাকৃতিক স্ক্রাবার হিসেবে চালের গুড়ার উপকারিতাঃ

আমাদের মাঝেমধ্যেই পার্লারে যাওয়া হয় ত্বকের একটু স্ক্রাবার করাতে।

কিন্তু আপনি বুঝতেই পারছেন না আপনার বাড়িতেই রয়েছে প্রাকৃতিক স্ক্রাবার। যেটা পার্লারের চাইতে আপনাকে ভালো উপকারিতা দিবে। 

 চালের গুঁড়ার ব্যবহার

এজন্য আপনাকে অল্প চালের গুড়ার সাথে সামান্য পরিমাণ পানি মিক্স করে নিতে হবে।

ভাল করে মিক্স করার পর ধীরে ধীরে সেই চালের গুড়া, আপনি আপনার মুখে মাসাজ করবেন।

আপনি ভাবতেও পারবেন না আপনার মুখ কতটুকু মসৃণ ও মোলায়েম হয়ে গেছে।  

রোদে পোড়া ত্বকের কালো দাগ দূর করতে চালের গুড়ার উপকারিতা;

বন্ধুরা আমাদের প্রতিদিনই কোন না কোন কাজে বাইরে যেতে হয়, এবং সেইসাথে রোদের তাপে আমাদের ত্বক কালো হয়ে যায় এবং বিভিন্ন ক্রিম ব্যবহার করার পরেও আমাদের ত্বক ক্লিন হয় না। 

মেছতা দূর করার উপায়

সে ক্ষেত্রে আপনি যেটা  করতে পারবেন সেটা হচ্ছে চালের গুঁড়ো ব্যবহার করে ত্বকের রোদে পোড়া কালো দাগ দূর করতে পারবেন।

যেহেতু চালের মধ্যে ফিরিউলিক এসিড থাকে,  তাই এটি আমাদের ত্বকে সানস্ক্রিন এর কাজ করে। 

ব্যবহারঃ

প্রথমে আপনাকে অল্প চালের গুড়া নিতে হবে।

এবং তাতে ২টেবিল চামচ দুধ মিশিয়ে ভালো করে মিক্স করে নিন।

মিক্স করা চালের গুঁড়ো আপনি আপনার হাতে, গলায়, মুখে ভালো করে মাখিয়ে নিন। 

 চালের গুঁড়ার উপকারিতা

১৫ মিনিট অপেক্ষা করুন। ১৫ মিনিট অপেক্ষা করার পর আপনি ঠান্ডা পানিতে ধুয়ে ফেলুন।

এভাবে কিছুদিন করার মাধ্যমে আপনার ত্বকের রোদে পোড়া কালো দাগ দূর হয়ে। 

ডার্ক সার্কেল দূর করতে চালের গুড়ার উপকারিতাঃ

বন্ধুরা, ডার্ক সার্কেল দূর করতে চালের গুঁড়া আমাদের অনেক বেশি উপকার করে থাকে।

মুখের দাগ দূর করতে আলুর ফেসিয়াল

ব্যবহারঃ

এজন্য ২ টেবিল চামচ চালের গুঁড়ার সাথে ১  চা চামচ পাকা কলার পেস্ট, ২ চা চামচ ক্যাস্টর অয়েল মিশিয়ে একটি পেস্ট তৈরি করুন।

পেস্ট তৈরি করা হয়ে গেলে আপনার চোখের চারপাশে এই প্যাকটি মাখিয়ে নিন।

২০ মিনিট অপেক্ষা করার পর ধুয়ে ফেলুন।

ভাবতেই পারবেন না আপনার ত্বক কতটা মসৃণ এবং উজ্জ্বল হয়ে গেছে। 

স্কিন হোয়াইটেনিংঃ 

বন্ধুরা চালের গুড়ার মধ্যে মিনারেল, ভিটামিন এবং অ্যাসিড থাকার কারণে চালের গুড়া আমাদের ত্বককে অনেক বেশি ফর্সা করতে কাজ করে। 

ত্বক ফর্সা করার উপায়

ব্যবহারঃ

চালের গুড়ার সাথে অল্প পরিমাণ মধু এবং ২ চা চামচ এলোভেরা জেল মিশিয়ে মুখে এবং গলায় মাসাজ করুন।

পুরোপুরি শুকিয়ে গেলে আপনি পরিষ্কার পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন সাথে সাথেই আপনার ত্বক ফর্সা এবং উজ্জ্বল হবে। 

তাহলে বন্ধুরা, বুঝতেই পারছেন চালের গুড়া আমাদের শরীরের ফিটনেস এবং ত্বক পরিষ্কার রাখার জন্য কতটা বেশি উপকারী।

 চালের গুঁড়ার উপকারিতা

আশাকরি আমার আজকের এই লিখাটি পড়ে আপনারা চালের গুড়ার গুরুত্ব বুঝে  এটা ব্যবহার করে উপকৃত হবেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here