ত্বক ফর্সা করতে চন্দন গুড়ার ফেসপ্যাক ব্যবহার করুন

0
33

বর্তমান সময়ে আমরা সকলেই সুন্দর এবং উজ্জ্বল ফর্সা ত্বক প্রত্যাশা করি।  কিন্তু জন্মগতভাবে আমরা অনেকেই ফর্সার ত্বকের অধিকারী হতে পারে না।  যার ফলে অনেকেই হীনমন্যতায় ভোগেন।  এবং বিভিন্নভাবে প্রলুব্ধ হয়ে কেমিক্যাল জাতীয় প্রসাধনী ব্যবহার করে থাকেন।  এসব ব্যবহারে সাময়িকভাবে ফর্সা হলেও পরবর্তী সময়ে তা ত্বকের জন্য হুমকি হয়ে দাঁড়ায় । এমনকি বিভিন্ন ধরনের স্কিন ডিজিজ বা চর্মরোগ দেখা দেয়। 

ত্বক ফর্সা করতে আলুর ফেসিয়াল

তাই সুপ্রিয় বন্ধুরা আমাদের এই আলোচনাটি সাজিয়েছি সম্পূর্ণ ঘরোয়া উপায়ে প্রাকৃতিক উপাদান দিয়ে কিভাবে কালো ত্বক ফর্সা করবেন তার কার্যকরী উপায় নিয়ে । 

নিজেদের ত্বক স্থায়ীভাবে ফর্সা করতে অনন্য প্রাকৃতিক গুণসম্পন্ন কিছু প্রাকৃতিক উপাদান দিয়ে তৈরি ফেসপ্যাক ব্যবহার করতে হবে। 

চলুন দেখে নেয়া যাক —

ত্বক ফর্সা করতে চন্দন গুড়ার ফেসপ্যাকঃ

ব্যবহৃত উপকরণসমূহঃ

চন্দনের উপকারিতা ও গুণাগুণ

*2 টেবিল চামচ চন্দন পাউডার। 

*1 চা চামচ খাঁটি মধু।

*আধা চা-চামচ নিম পাউডার।

*আধা চা-চামচ কাঁচা হলুদের গুড়া।

*প্রয়োজন মতো গোলাপজল। (  উপাদানগুলো মেশালে যেন হাতে মাখা মাখা বা আঠালো হয় সেই পরিমানে )

চন্দন গুড়ার ফেসপ্যাক তৈরি প্রক্রিয়াঃ

প্রথমে একটি পরিষ্কার  আর্থ ডে চন্দন পাউডার,নিম পাউডার এবং হলুদের গুঁড়া ভালোভাবে মিশিয়ে নিন। 

মধু এবং পরিমাণমতো গোলাপজল দিয়ে ভালোভাবে মিশিয়ে নিন তৈরি হয়ে যাবে ত্বক ফর্সাকারী অত্যন্ত কার্যকরী একটি ফেসপ্যাক। 

ত্বকে ফেসপ্যাকটি ব্যবহারের উপকারিতা সমূহঃ

চন্দনের রয়েছে অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল এবং এন্টি অক্সিডেন্ট উপাদান সমূহ।  যা আমাদের ত্বককে বিভিন্ন ধরনের সংক্রমণ মুক্ত রাখে। সেই সাথে চন্দনের বিদ্যমান হিলিং উপাদান আমাদের ত্বককে গভীর থেকে উজ্জ্বল এবং ফর্সা করে তুলে।

মুখের কালো দাগ সম্পূর্ণরূপে দূর করে।

ব্রণের দাগ এবং ব্রণ দূর করতে এই ফেসপ্যাকটি অত্যন্ত কার্যকরী।

কাঁচা হলুদের নির্যাস আমাদের ত্বকের উজ্জলতা গভীর থেকে বৃদ্ধি করে।

মধুর এন্টিঅক্সিডেন্ট এবং এন্টি ব্যাকটেরিয়াল উপাদান আমাদের ত্বককে সংক্রমণ মুক্ত রাখে সুস্থ রাখে।

এবং ত্বকের স্বাভাবিক আর্দ্রতা বজায় রাখে।

**তাই কালো ত্বক স্থায়ীভাবে ফর্সা করতে এই ফেসপ্যাকটি ব্যবহার করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here