উজ্জল এবং ফর্সা ত্বক পেতে বাড়িতে বসেই গোল্ড ফেসিয়াল করার পদ্ধতি

0
885
গোল্ড ফেসিয়াল

বর্তমান সময়ে ফেসিয়ালের ব্যবহার ব্যাপক থেকে ব্যাপকতর। বিভিন্ন ধরনের ফেসিয়াল বিউটি পার্লার থেকে সেলুনে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। তবে তাদের মধ্যে থেকে উজ্জ্বল এবং সম্পূর্ণ ফর্সা ত্বকের জন্য গোল্ড ফেসিয়াল  অত্যন্ত জনপ্রিয়। 

তবে টাকা এবং সময় বিবেচনায় অনেকেই পার্লারে গিয়ে গোল্ড ফেসিয়ালের সুবিধা ভোগ করতে পারেন না। সুপ্রিয় বন্ধুরা যারা পার্লারে না গিয়ে গোল্ড ফেসিয়াল  ঘরে বসে করতে চান তাদের জন্যই আমাদের আজকের আলোচনাটি সাজানো। তাহলে বন্ধুরা চলুন দেখে নেয়া যাক ঘরে বসেই কিভাবে গোল্ড ফেসিয়াল করবেন তার বিস্তারিত পদ্ধতি।

গোল্ড ফেসিয়াল এর দাম

উজ্জল এবং ফর্সা ত্বকের জন্য গোল্ড ফেসিয়াল করার পদ্ধতি সমূহঃ

 গোল্ড ফেসিয়াল আপনার ত্বকের  স্থায়ীভাবে উজ্জ্বল এবং ফর্সা করে তুলে।  ঘরে বসে গোল্ড ফেসিয়াল করার জন্য কিছু পদক্ষেপ অনুসরণ করতে হবে। নিম্নে তা আলোচনা করা হলঃ

 গোল্ড ফেসিয়ালের প্রস্তুতি পর্বঃ

 উজ্জল এবং ফর্সা ত্বক পেতে গোল্ড ফেসিয়াল করতে হলে প্রথমেই আপনাকে যে ধাপ টি অতিক্রম করতে হবে সেটি হচ্ছে  প্রস্তুতিপর্ব। আর প্রস্তুতি পর্বের অন্তর্ভুক্ত ধাপগুলো হচ্ছে।

ত্বক ফর্সা করার উপায়

১। ক্লেনজিং বা ত্বক পরিষ্কারঃ

 প্রথমে আপনার ত্বক পরিষ্কারের জন্য তোকে সাধারণ ক্লিনেজার লাগান এবং হাতের সাহায্যে 5 থেকে 7 মিনিট ভালভাবে মাসাজ করুন। এরপর পরিষ্কার তোলা বা ব্রাশের  সাহায্যে  ত্বক মুছে  নিন।

হোয়াইট হেডস হওয়ার কারণ

২। স্টিমঃ

 প্রথমেই একটি পাত্রে জল ফুটন্ত জল নিন। এরপর মাথার উপর দিকে তোয়ালে দিয়ে জলের ওপরে আপনার মুখটি রেখে দিন। যেন জল থেকে উঠা দোয়া আপনার মুখে লাগে। 5 থেকে 7 মিনিট এভাবে মুখে স্ট্রমিং করার পর মুখ তুলে নিয়ে তোলা বা তোয়ালে দিয়ে পরিষ্কার করেন। এতে করে  ত্বকের সব ময়লা দূর হয়ে যাবে এবং ত্বক হবে পরিস্কার।

স্টিম
স্টিম

 উজ্জ্বল এবং ফর্সা ত্বকের যত্নে গোল্ড ফেসিয়াল এর মূল পদক্ষেপঃ

 ১ম পদক্ষেপঃ

 প্রথমে আপনার গোল্ড ফেসিয়াল কিট থেকে গোল্ড ক্লিনেজার টি ব্যবহার করে নিন।  মুখ এবং গলায় ভালোভাবে ম্যাসাজ করে নিন। পাচ  থেকে দশ মিনিট ম্যাসাজ করার পর পরিষ্কার পানি অথবা তুলা দিয়ে মুখ পরিষ্কার করে নিন।

গোল্ড ফেসিয়াল কিট

গোল্ড ফেসিয়ালের দ্বিতীয় পদক্ষেপঃ

 এবার গোল্ড ফেসিয়ালের স্ক্রাফটি বের করে আগের মতই ক্লিনেজার নিয়ে মুখে এবং গলায় স্ক্রাব করতে থাকুন। 5 থেকে 7 মিনিট স্ক্রাব করার পর ভালোভাবে মুখ ধুয়ে নিন।

মুখ ধুয়ে নিন

 গোল্ড ফেসিয়াল করার তৃতীয় পদক্ষেপঃ

 এ পর্যায়ে প্রথমে পরিমাণ মত গোল্ড ক্রিম নিন।  মুখে ও গলায় সমানভাবে গোল্ড ক্রিম লাগিয়ে নিন। 5 থেকে 7 মিনিট ভালোভাবে ম্যাসাজ করুন এবং কিছু সময় অপেক্ষা করে  জেল দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন।

ঘরে বসে গোল্ড ফেসিয়াল করার নিয়ম

 চতুর্থ ধাপঃ

 গোল্ড ফেসিয়ালের এ পর্যায়ে গোল্ড ফেসিয়াল কিট থেকে গোল্ড জেল নিন।  মুখে এবং গলায়  ভালভাবে মাসাজ করুন। এরপর পরিষ্কার জল দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন। গোল্ড ফেসিয়ালের এ পর্যায়ে আপনি মুখে অধিকতর শীতলতা অনুভব করবেন।

গোল্ড ফেসিয়াল এর উপকারিতা

গোল্ড ফেসিয়ালের পঞ্চম এবং শেষ ধাপঃ

একদম শেষ ধাপে আপনার কেটে বিদ্যমান ট্রিটমেন্ট প্যাকটি পরিমাণমতো নিয়ে মুখে এবং গলায় লাগিয়ে নিন। কিছুসময় চুপচাপ শুয়ে অপেক্ষা করুন।

গোল্ড ফেসিয়ালের ট্রিটমেন্ট প্যাকটি সম্পূর্ণভাবে শুকিয়ে গেলে পরিষ্কার পানিতে হাত ডুবিয়ে আঙ্গুল দিয়ে আস্তে আস্তে মাস্কটি তুলে নিন। এরপর পরিষ্কার এবং শীতল জলে মুখ ধুয়ে নিন।

মুখের দাগ দূর করার উপায়

 উপরোক্ত পাঁচটি ধাপ অতিক্রম করলেই উজ্জ্বল এবং ফর্সা ত্বকের জন্য আপনার গোল্ড ফেসিয়াল করা সম্পন্ন হবে।

 উজ্জল এবং ফর্সা ত্বক পেতে গোল্ড ফেসিয়াল করার সময় লক্ষণীয় কিছু বিষয়ঃ

  •  গোল্ড ফেসিয়ালের কোন উপাদান যেন আপনার চোখের অভ্যন্তরে না যায়।
  •  মেসেজ করার সময় ত্বকে অতিরিক্ত প্রেসার দিবেন না।
  •  গোল্ড ফেসিয়ালের উপাদান মুখে লাগিয়ে রোদে বা ধুলাবালিতে বের হবেন না।
  •  ফেসিয়ালের পর 2 থেকে 3 দিন আপনার ত্বককে রোদ থেকে বাঁচিয়ে রাখুন।
মুখের পোড়া দাগ দূর করার উপায়
  •  গোল্ড ফেসিয়ালের পরেই ত্বককে ময়েশ্চারাইজ করে নিন।
  •  ভালো ফলাফল পেতে মাসে দুবার গোল্ড ফেসিয়াল করুন।
  • উজ্জল এবং ফর্সা ত্বক প্রাপ্তিতে গোল্ড ফেসিয়ালের উপকারিতাঃ
  •  গোল্ড ফেসিয়াল আপনার ত্বককে স্থায়ীভাবে উজ্জ্বল ফর্সা এবং আকর্ষণীয় করে তোলে।
ডায়মন্ড ফেসিয়াল করতে কত টাকা লাগে
ফেসিয়াল করতে কত টাকা লাগে
  •  গোল্ড ফেসিয়াল এর ফলে আপনার ত্বক থেকে বিভিন্ন ধরনের দাগ এবং ব্রণ দূরীভূত হয়।
  •  গোল্ড ফেসিয়াল এর ফলে আপনার ত্বক দূষণমুক্ত হয় যার ফলে ত্বক থাকে সুস্থ।
  • গোল্ড ফেসিয়াল এর ফলে আপনার ত্বক এর সমস্ত ধুলো-ময়লা এবং ক্ষতিকারক ব্যাকটেরিয়া দূর হয়।
ফেসিয়াল করার নিয়ম
  •  লো গোল্ড ফেসিয়াল আপনার ত্বকের মৃত কোষ গুলোকে সজীব করে তুলতে সাহায্য করে।
  •  ত্বকের বলিরেখা এবং বিভিন্ন  দাগ দূর করতে গোল্ড ফেসিয়াল অত্যন্ত কার্যকরী।
  •  গোল্ড ফেসিয়াল আপনার ত্বককে করে তোলে মসৃণ এবং কোমল।
মুখের কালো দাগ ও গর্ত দূর করার উপায়

সম্পূর্ণ স্থায়ীভাবে ফর্সা এবং উজ্জ্বল ত্বক প্রাপ্তির জন্য গোল্ড ফেসিয়াল অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ । তাই আমাদের তৈরি পদক্ষেপগুলো অনুসরণ করে ঘরে বসেই গোল্ড ফেসিয়াল করুন। হয়ে উঠুন আকর্ষণীয়, সুন্দর, ফর্সা এবং উজ্জ্বল ত্বকের অধিকারী।

 ধন্যবাদ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here