বিভিন্ন ত্বকের যত্নে গোলাপ জলের নানা উপকারিতা

0
66
গোলাপ জলের উপকারিতা

ভালবাসার প্রতীক হিসেবে যুগ যুগ ধরে অপ্রতিদ্বন্দ্বী ভাবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে গোলাপ ।

গোলাপ জলের উপকারিতা

গোলাপ যেমন ভালোবাসার প্রতীক ঠিক তেমনি গোলাপ দিয়ে তৈরি গোলাপ জল ত্বককে ভালবাসে অতি যত্নে। বিভিন্ন ত্বকের যত্নে গোলাপ জলের নানা উপকারিতা এক কথায় বলে শেষ করা যাবেনা । তাই আপনাদের ত্বকের যত্ন, চুলের চিকিৎসা এবং স্বাস্থ্যের জন্য বন্ধুর প্রয়োজন হলে এখনই গোলাপ জলের সাথে বন্ধুত্ব করে নিন এবং আপনার সৌন্দর্য রুটিনে গোলাপ জলের জন্য একটি জায়গা করে দিন ।

গোলাপজল বিশেষত ত্বকের নানা সমস্যার সমাধান বা চিকিৎসা করে থাকে। এছাড়াও গোলাপজল সব ঋতুতেই ব্যবহার উপযোগী। এটি যেকোন ধরনের ত্বকের ( যেমনঃ- শুষ্ক, তৈলাক্ত , সেনসিটিভ ও মিশ্র ) জন্য উপকারী । পৃথিবীর সমস্ত ত্বকের যত্নের উপাদানগুলোর মধ্যে গোলাপজল ওয়ান অফ দা বেস্ট স্কিন কেয়ার এলিমেন্ট। 

একজন ব্যক্তি কেন গোলাপ জল ব্যবহার করবে?

১৫ মিনিটে ত্বক ফর্সা করার উপায়

গোলাপজলে আছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি । এটি ত্বকের কোলাজেন উৎপাদনে সাহায্য করে । গোলাপজলে আরো আছে ময়শ্চারাইজিং প্রোপার্টি যা বিশেষভাবে শুষ্ক ত্বক কে ময়েশ্চারাইজ করে । শুষ্ক ত্বক ছাড়াও এটি সমানে অন্যান্য ত্বক, চুল ও স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী । 

এবার আমি আপনাদেরকে জানিয়ে দিবো গোলাপ জলের উপকারিতা ও এর ব্যবহার

গোলাপ জলের উপকারিতাঃ

টোনারঃ

মুখে যেকোনো ধরনের কসমেটিক ব্যবহারের আগে টোনার ব্যবহারের প্রয়োজন পড়ে এবং যারা এটি করে না অর্থাৎ কসমেটিক ব্যবহারের আগে টোনার ব্যবহার করেনা তাদের টোনার ব্যবহার করা উচিত।

গোলাপ জলের উপকারিতা

গোলাপজল টোনার হিসেবে সুপরিচিত এবং এটি ত্বকের জন্য এক্সিলেন্ট ওয়ার্কার হিসেবে কাজ করে।

ময়েশ্চারাইজারঃ

ময়েশ্চারাইজিং মানে হচ্ছে ত্বকের বাইরের আবরণের উপর একটি রক্ষাকারী আবরণ তৈরি করা যা ত্বককে নরম ও কোমল করে রাখে। গোলাপজল ত্বকের বাষ্পীভবনকে হ্রাস করে জলয়োজনকে বৃদ্ধি করে।

গোলাপ জলের উপকারিতা

গোলাপজলে আছে ভিটামিন এ, সি, বি ও ডি এর সমন্বয়ে তৈরী ময়েশ্চারাইজিং প্যাকড, এটি সকল ধরনের ত্বককে ময়শ্চারাইজ করে কিন্তু বিশেষভাবে গোলাপজলের ময়েশ্চারাইজিং প্রপার্টি শুষ্ক ত্বকের জন্য খুব ভালো ।

ক্লিনজারঃ

ত্বকে জমে থাকা অতিরিক্ত ময়লা এবং অতিরিক্ত মেকআপ তোলার জন্য প্রয়োজন ক্লিনজার । গোলাপজল ত্বকের জন্য খুব ভালো ক্লেনজার হিসেবে বিখ্যাত। এটি ত্বকের  অতিরিক্ত তেল অপসারণ করে এবং অতিরিক্ত তেল নিয়ন্ত্রণ করে ।

ত্বকের যত্নে গোলাপ জলের উপকারিতা

এছাড়াও এটি ত্বকের তৈলাক্ত ভাব থেকে সম্পূর্ণ মুক্তি দিবে এবং ত্বকে ময়লার স্তর তৈরিতে বাধা প্রদান করে ফলে ত্বকে ব্রণ সৃষ্টিকারী জীবাণু সহ অন্যান্য জীবাণু আক্রমণ ও সংক্রমণ করতে পারেনা বিদায় ত্বক হয়ে উঠে ফ্রেশ এবং ইয়াংগার । 

ইউ ভি রশ্মি থেকে রক্ষা করেঃ

সূর্যের আলোতে মানুষ , উদ্ভিদ ও অন্যান্য প্রাণীদের জন্য উপকারী উপাদান থাকলেও সূর্যের আলোতে রয়েছে ক্ষতিকারক অতিবেগুনি রশ্মি যা আল্ট্রাভায়োলেট রশ্মি নামে পরিচিত । এই রশ্মি ত্বকের জন্য জঘন্য রকমের ক্ষতিকর উপাদান। এই রশ্মির অন্যতম একটি ক্ষতিকারক দিক হলো এটি ত্বককে দ্রুত বয়সি করে তুলে অর্থাৎ ত্বকের মধ্যে খুব তাড়াতাড়ি বয়সের ছাপ নিয়ে আসে। 

ত্বকের যত্নে গোলাপ জল

তবে প্রতিদিন গোলাপ জলের ব্যবহার ত্বক ইউভি রশ্মি থেকে রক্ষা করে এবং চেহারায় বয়সের ছাপ সৃষ্টিকারীদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করে ত্বককে আরও বেশি ইয়াং করে তোলে। 

পি এইচ ব্যালেন্স বজায় রাখেঃ 

পি এইচকে (pH) সংজ্ঞায়িত করলে হাইড্রোজেনের ঋণাত্মক – লগারিদম কে পিএইচ বলে। সহজ ভাবে বলতে গেলে রক্ত, মূত্র মাথার তালু, চুল, ত্বক অর্থাৎ শরীরের সমস্ত সিস্টেমের জন্য পিএইচ গুরুত্বপূর্ণ উপাদান । আর পিএইচ এর মাত্রা সঠিক ও নির্দিষ্ট মাত্রায় না থেকে যদি কম বা বেশি হয় তাহলে ত্বক ও শরীর ক্ষতির সম্মুখীন হয়।  তাই গোলাপজল ত্বকে ব্যবহার করাটা এই জন্য গুরুত্বপূর্ণ যে গোলাপজল ত্বকের পিএইচ ব্যালেন্স বজায় রাখতে সাহায্য করে । 

সুস্থ ত্বক কোষ ও টিস্যুঃ

সুস্থ ত্বকের প্রথম শর্ত হলো সুস্থ কোষ ও সুস্থ টিস্যু । সুতরাং আমাদের ত্বকের সুস্থতার জন্য প্রয়োজন কোষ ও টিস্যুর সুস্থতা। গোলাপ জলের মধ্যে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ত্বকের কোষ কে শক্তিশালী করে এবং ত্বকের টিস্যু পুনরুজ্জীবিত করে।

ত্বক ফর্সা করতে গোলাপ জল

এর ফলে ত্বকের কোষ ও টিস্যু সুস্থ থাকে এবং যার কারণে ত্বক সুস্থ থাকে।

ফাইন লাইনস ও রিংকেল দূর করেঃ

নিজের চেহারার সৌন্দর্য মলিন হলে এ বিষয়ে চিন্তিত নয় এমন লোকের সংখ্যা খুঁজে পাওয়া দুর্লভ। আবার একদিকে চেহারায় ফাইন লাইনস ও রিংকেল এর আগমন চেহারার সৌন্দর্য কে পরাজিত করার জন্য যথেষ্ট। চেহারায় রিংকেল ও ফাইন লাইনস দেখা দিলে চিন্তা করার কোনো কারণ নেই।

ত্বক ফর্সা করতে গোলাপ জল

কারণ গোলাপ জল ত্বকের ফাইন লাইনস ও রিংকেল দূর করে দিয়ে ত্বককে গভীরভাবে উজ্জ্বল ও দীপ্তিময় করে তোলে। 

ত্বক সমস্যার সমাধানঃ

গোলাপজল ত্বকের বিভিন্ন ধরনের সমস্যার সমাধান দিয়ে থাকে কারণ গোলাপ জলের মধ্যে রয়েছে অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি প্রপার্টি ও এন্টিব্যাক্টেরিয়াল প্রপার্টি।

ব্রণ দূর করার ফেসপ্যাক

অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি প্রপার্টি ত্বকের ইনফ্লামেশন অর্থাৎ ত্বকের জ্বালা কমিয়ে আনে। আর অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল উপাদান ত্বকের ব্রণ , অ্যাকনি, ডার্মাটাইটিস ও একজিমার মত ত্বকের বিভিন্ন সমস্যার সমাধান দেয়। 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here