কাঁচা কলার উপকারিতা ও অসাধারণ গুণ

0
321
কাঁচা কলার উপকারিতা
কাঁচা কলার উপকারিতা

কলা কে না পছন্দ করে? আমরা কলা বলতে শুধু হলুদ রঙের পাকা কলা কে বুঝে থাকি। কিন্তু এই পাকা কলা ছাড়া আরো এক ধরনের কলা রয়েছে, যা আমাদের শরীরের জন্য অনেক উপকারী এবং গুরুত্বপূর্ণ। 

আমাদের শরীরে এমন কিছু জটিল সমস্যা দেখা দেয় যা কিছু সাধারণ প্রাকৃতিক খাবার খাওয়ার মাধ্যমে সমাধান হয়ে যায়। বিষয়গুলো জানা না থাকার কারণে আমরা এখনো কাচ কলার উপকারিতা বুঝতে পারিনা। তাই আজ আপনাদের সাথে আলোচনা করতে যাচ্ছি কাঁচা কলার উপকারিতা নিয়ে। 

কাঁচা কলার উপকারিতাঃ

কাঁচা কলা বাণিজ্যিকভাবে চাষাবাদ করা হয় কারণ কাঁচা কলার চাহিদা দেশে-বিদেশে অনেক কাঁচা কলা আমাদের শরীরে অনেক বেশি উপকার করে থাকে আজ কাজ করার এমন একটি গ্রুপ উপকারিতা আপনাদেরকে আপনারা শুনে অবাক না হয়ে পারবেন না। 

ডায়রিয়া আমাশয় রোধ করতে কাঁচা কলার উপকারিতাঃ

কাঁচকলা দেখলেই প্রথমে যে বিষয়টি মাথায় আসে সেটি হল  কাঁচকলা আমাদের ডায়রিয়া ও আমাশয় রোগ রোধ করতে কাজ করে। কাঁচা কলার মধ্যে থাকা এন্টি ব্যাকটেরিয়াল উপাদান ও অ্যান্টি অক্সিডেন্ট আমাদের পাকস্থলী তে হজমক্রিয়া বাড়ানোয়  অনেক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে। তাই ডায়রিয়া ও  আমাশয় রোগ করতে কাঁচ কলার কোনো বিকল্প নেই।

শরীরে ফ্যাটি এসিড উৎপন্ন করতে কাঁচা কলার উপকারিতাঃ

কাঁচ কলার মধ্যে থাকা প্রচুর পরিমাণে ফ্যাট বা শর্করা আমাদের শরীরে দ্রুত হজম হয় না। এটি আমাদের শরীরের ভিতরে গিয়ে পাকস্থলীর পাচক রসের সাথে বিক্রিয়া করে শরীরে ফ্যাটি এসিড উৎপন্ন করতে কাজ করে। যার ফলে আমাদের শরীরে যে কোন খাবার হজম করার প্রক্রিয়া ত্বরান্বিত হয়।

কাঁচা কলা মানসিক প্রশান্তি দিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকেঃ 

কাঁচকলার মধ্যে এমন একটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান রয়েছে যা আমাদের শরীরে মানসিক প্রশান্তি দিতে কাজ করে থাকে। গবেষণায় পাওয়া গেছে কাঁচ কলায় থাকে ট্রিপটোফ্যান নামক প্রোটীন, যা আমাদের শরীরে গিয়ে সেরোটোনিনে রূপান্তরিত হয়। আর সেরোটোনিন আপনার মনকে রিলাক্স করে, আপনার মন ভাল করে তোলে, আপনাকে মানসিকভাবে প্রশান্তি  দিতে খুবই কার্যকরী ভূমিকা রাখে। 

কাঁচকলা রক্ত শূন্যতা পূরণ করতে কাজ করেঃ

কাঁচ কলার মধ্যে থাকা  ক্যালসিয়াম এবং আয়রন আমাদের শরীরে রক্ত শূন্যতা পূরণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। তাই এনিমিয়া রোগী যারা আছেন তাদেরকে ডাক্তারেরা কাঁচ কলা খাওয়ার পরামর্শ দিয়ে থাকেন।

কাঁচকলা আমাদের রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করে, 

এছাড়া ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে ভূমিকা রাখে, 

তার পাশাপাশি কাঁচ কলা খাওয়ার মাধ্যমে আমাদের শরীরে পেশি শক্ত হয় এবং কাজ করার কর্মক্ষমতা বাড়ে। 

সুতরাং বন্ধুরা, এতক্ষণ আপনাদের সাথে কাঁচ কলার যে উপকারিতা গুলো শেয়ার করলাম, চেষ্টা করবেন এইসব উপকারিতা আপনাদের প্রয়োজনে ব্যবহার করার জন্য। তাই খাবার তালিকায় পাকা কলা রাখার পাশাপাশি কাঁচ কলা রাখার অভ্যাস গড়ে তুলুন।   

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here