ওজন কমাতে জিরার উপকারিতা ও ব্যবহার

0
62
ওজন কমাতে জিরার উপকারিতা

জিরা চেনেন তো????? 

হ্যাঁ। রান্না করতে যে জিরা ব্যবহার করি সে জিরার কথাই বলছি। এখন প্রশ্ন করতে পারেন, এতকিছু থাকতে হঠাৎ জিরা কেন???

ওজন কমাতে জিরার উপকারিতা

হ্যাঁ, বন্ধুরা। আজকে জিরা নিয়ে আলোচনা করব। তবে রান্নার ক্ষেত্রে নয়। নিজের দিকে খেয়াল করে দেখুন, দিন দিন আপনার ওজনটা বেড়েই যাচ্ছে। কিন্তু সময়ের অভাবে জিমে গিয়ে ব্যায়াম করে ওজন কমাতে পারছেন না। 

ওজন কমানোর উপায়

তাই আপনার দরকার জিরা। কিভাবে জিরা খেয়ে ১৫ দিনে ওজন কমাবেন আজকে আমি সেই টিপস গুলো আপনাদের সাথে শেয়ার করতে যাচ্ছি। 

এই টিপসগুলোতে ওজনকমাতে জিরার উপকারিতা ও এর ব্যবহারও শেয়ার করছি ।

ওজন কমানোর উপায়
ওজন কমানোর উপায়

আশা করি আমার টিপসগুলো শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত পড়লে আপনার ওজন ১৫ দিনে অনেকটাই কমে যাবে।

ওজন কমাতে জিরার উপকারিতা ও এর ব্যবহারঃ

১৫ দিনে ওজন কমানোর জন্য এইভাবে জিরা খানঃ

জিরার মধ্যে থাকা থাইমল উপাদান আমাদের শরীরে HDL কে বাড়াতে সহায়তা করে এবং খারাপ কোলেস্টেরল কমাতে কাজ করে।

ওজন কমাতে জিরার উপকারিতা

খাবার পদ্ধতিঃ

যারা শরীরের মেদ অল্পদিনেই কমাতে চান তারা একগ্লাস পানিতে ১ চা চামচ জিরা দিয়ে ২-৩ ঘণ্টা ভিজিয়ে রাখুন।

এরপর পানি ছেকে পান করুন।

এভাবে প্রতিদিন খালি পেটে জিরা ভেজানো পানি খেলে ১৫ দিনের মধ্যে আপনার ওজন কমে যাবে।

পেটের মেদ কমাতে জিরার সাথে লেবুর রসের মিশ্রনঃ 

যাদের পেটের চর্বি বেড়ে গেছে বা স্বাস্থের তুলনায় ভুঁড়ি বেড়ে গেছে। তারা জিরার সাথে লেবুর রস মিশিয়ে খেতে পারেন। এভাবেই খেলে  খুব দ্রুত আপনার পেটের চর্বি কমে যাবে।

জিরাতে কমবে ওজন

খাবার পদ্ধতিঃ

এজন্য আপনাকে এক গ্লাস পানিতে ২ চা চামচ জিরা সাথে ১ চা চামচ লেবুর রস মিশিয়ে রেখে একটু গরম করে নিতে হবে।

হালকা ঠান্ডা হয়ে এলে সে পানি আপনি খেয়ে ফেলুন। 

এভাবে সপ্তাহে ৩-৪ বার জিরার পানি লেবুর রসের সাথে খেলে দ্রুত আপনার পেটের চর্বি কমে যাবে।

অতিরিক্ত চর্বি গলাতে জিরার সাথে মধু পাতিলেবুর রস মেশানঃ

যাদের ওজন উচ্চতার চেয়ে অনেক বেশি বেড়ে গেছে, যারা খুব করে যাচ্ছেন দ্রুত ওজন কমাতে জিরার সাথে মধু ও পাতিলেবুর মিশিয়ে।

খাবার পদ্ধতিঃ

ওজন কমাতে জিরার ব্যবহার

জিরা পানির সাথে ১ চা চামচ মধু ও ২ চা চামচ পাতিলেবুর রস মিশিয়ে হালকা গরম করে প্রতিদিন রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে পান করেন।

দ্রুত ওজন কমানোর উপায়

তাহলে দুই থেকে তিন সপ্তাহের মধ্যে আপনার শরীরের চর্বি অনেক খানি গলে যাবে। যাহ আপনি ওজন দিলে বুঝতে পারবেন। 

নিজেকে আকর্ষণীয় স্লিম দেখাতে জিরার স্যুপ খানঃ

যারা নিজেদেরকে আকর্ষণীয় দেখাতে ভালোবাসেন বা শরীর সবসময় স্লিম রাখতে চান, তারা তাদের খাবারের তালিকায় প্রতিদিন এক বাটি করে জিরার স্যুপ রাখতে পারেন।

ওজন কমানোর উপায়

খাবার পদ্ধতিঃ

জিরার স্যুপ বানাতে যে উপকরণগুলি লাগবে তা হল, ১  চা চামচ জিরা বাটা একগ্লাস পরিমাণ পানিতে মিশিয়ে তাতে ৩-৪টি গোল মরিচের গুঁড়ো দিয়ে ভাল করে মিশিয়ে জিরার স্যুপ তৈরি করে নিন।

দ্রুত ওজন কমানোর উপায়

প্রতিদিন সকাল বেলা খালি পেটে জিরার স্যুপ খেলে দ্রুত আপনি স্লিম হয়ে নিজেকে অন্যদের কাছে আকর্ষণীয় করে তুলতে পারবেন। 

নোটঃ

হঠাৎ করেই খুবই ক্লান্ত লাগতেছে, মন-মেজাজ খিটখিটে হয়ে গেছে, অথবা কাজ করার আগ্রহ হারিয়ে ফেলেছেন।

তখনই আপনি জিরা মেশানো এক গ্লাস পানি খেয়ে নিন, সাথে সাথে আপনার মন চাঙ্গা হয়ে উঠবে এবং কাজ করার ক্ষমতা পুনরায় ফিরে পাবেন। 

ওজন কমানোর উপায়

বন্ধুরা, জিরা শুধু যে রান্নার কাজে ব্যবহৃত হয় এতদিন আমরা তাই জানতাম। কিন্তু আজ আমার এই প্রতিবেদনটি পড়ার মাধ্যমে নিশ্চয়ই বুঝতে পেরেছেন জিরা আমাদের শরীরের ওজন কমাতে কতটা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। 

তার পাশাপাশি জিরাপানি আমাদের শরীর এবং মন মেজাজ ঠিক রাখতেও অনেক গুরুত্বপূর্ণ কাজ করে থাকে।

দ্রুত ওজন কমানোর পদ্ধতি

তাই আপনাদের সুস্বাস্থ্যের কথা চিন্তা করে আপনারা জিরার যথাপোযুক্ত ব্যবহার করে নিজেদের স্বাস্থ্য ঠিক রাখুন। 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here