ত্বকের তৈলাক্ত ভাব দূর করতে অ্যালোভেরার কার্যকরী কিছু ফেসপ্যাক

0
3634
অ্যালোভেরার ফেসপ্যাক
অ্যালোভেরার ফেসপ্যাক

আমাদের ত্বক বৈচিত্র্যময়।। কারো ত্বক যেমন তৈলাক্ত ঠিক তেমনিভাবে কারো ত্বক  সম্পূর্ণ রুক্ষ-শুস্ক।তৈলাক্ত শুষ্ক যাই হোক না কেন। আমাদের রূপচর্চা কিন্তু কোনভাবেই থেমে থাকে না। তবে আমরা কি আমাদের তৈলাক্ত ত্বকের  জন্য সম্পূর্ণ ভাল পদ্ধতি তা গ্রহণ করতে পেরেছি?

যদি পেরে থাকি তাহলে সেটা কি প্রাকৃতিক?তাই বন্ধুরা আমরা আমাদের আলোচনার বিষয় সাজিয়েছি তৈলাক্ত ত্বকের যত্নে, সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক উপাদান এলোভেরার সেরা তিনটি ফেসপ্যাক নিয়ে।

উজ্জল ত্বক প্রাপ্তিতে এলোভেরার গুরুত্ব

★★ তৈলাক্ত ত্বকের কিছু বৈশিষ্ট্যঃ

★ ত্বক তৈলাক্ত হলে আপনার ত্বক চিকচিকে এবং পিচ্ছিল হবে। বিশেষ করে কপাল এবং নাকের অংশে।

★ আপনার ত্বক নানা স্বাভাবিক ত্বকের থেকে মোটা হবে।

★দিনের অন্যান্য সময়ের চেয়ে ঘুম থেকে ওঠার পরে আপনার মুখ অতিরিক্ত তৈলাক্ত হবে।

★মুখে ব্রণ ব্ল্যাকহেডস ও হোয়াইটহেডস। ইত্যাদির অবস্থান লক্ষ্য করা যায়।

অ্যালোভেরা ব্যবহারের কিছু বিধিনিষেধ

★মুখ ধুয়ার কিছু সময় পরেই পুনরায় আপনার মুখের ত্বক আবার তৈলাক্ত হয়ে যায়।

এইসব বিষয় থেকে নিজের ত্বককে রেহাই দিতে চাইলে আমাদের তৈরি ফেসপ্যাক গুলো ব্যবহার করে দেখুন।

 তৈলাক্ত ত্বকের যত্নে অ্যালোভেরার  কার্যকরী কিছু ফেসপ্যাকঃ

 অ্যালোভেরার ফেসপ্যাক তৈরিতে ব্যবহৃত উপাদানসমূহঃ

★সতেজ অ্যালোভেরার পাতার রস।

★ খাঁটি মধু।

★দুধ।

★ মুলতানি মাটি।

★ তুলসী পাতার রস।

★ ওটমিল।

★ হলুদ।

★ কমলার খোসা,

★চিনি,ইত্যাদি।

অ্যালোভেরা ফেসপ্যাক তৈরিতে উপাদানসমূহের মিশ্রণঃ

মিশ্রণ ১ঃ

দুই টেবিল-চামচ অ্যালোভেরার রস

 এবং দুই টেবিল-চামচ খাঁটি মধু ভালোভাবে মিশিয়ে নিন।

★ অ্যালোভেরার পাতা পানিতে ফুটিয়ে ওই পানিতে মধু মিশিয়েও ব্যবহার করতে পারেন।

চুলের গোড়া শক্ত করতে এলোভেরার সাথে লেবুর রস ও কেস্টর অয়েল

ব্যবহারবিধিঃ

*আপনার মুখ ভালোভাবে পরিষ্কার করে নিন।

* তোলা বা মুখের ব্রাশ দিয়ে মিশ্রণটি মুখে ব্যবহার করুন।

* ব্যবহারের পর 15 থেকে 20 মিনিট সময় দিন সম্পূর্ণভাবে মিশ্রণটি যেন শুকিয়ে যায়।

শীতকালে ত্বকের যত্নে ময়েশ্চারাইজার ক্রিম

*পরিষ্কার পানি দিয়ে আপনার মুখ ধুয়ে নিন।

★★তৈলাক্ত ত্বকে এলোভেরার এই মিশ্রণটি ব্যবহারের উপকারিতাঃ

*এটি আপনার  মুখের তৈলাক্ত ভাব দূর করে।

*আপনার ত্বকের কোমলতা ধরে রাখে।

* এবং ত্বককে উজ্জ্বল করে তোলে।

উজ্জল ত্বক প্রাপ্তিতে এলোভেরার গুরুত্ব

মিশ্রণ ২ঃ

 4 টেবিল-চামচ অ্যালোভেরার জেল  ৪টেবিল চামচ দুধ  এবং 1 টেবিল চামচ হলুদের গুঁড়ো মিশিয়ে মিশ্রণ তৈরী করুন।

কার্যকরী ফলাফল পেতে মিশ্রণ গুলো ভালোভাবে মিশ্রিত হয়েছে কিনা সেটা নিশ্চিত হোন।

কাঁচা হলুদের রুপচর্চা
রুপচর্চা

ব্যবহারবিধিঃ

ব্যবহারের পূর্বে মুখ ভালোভাবে পরিষ্কার করে নিন মিশ্রণটি নিয়ে  ত্বকের ওপর ভালোভাবে মালিশ করুন।মিশ্রণটি শুকিয়ে যাবার পর একঘন্টা সময় নিন এবং পরিষ্কার পানি দিয়ে আপনার মুখ ধুয়ে ফেলুন।

এলোভেরার এই ফেসপ্যাকটির প্রভাবঃ

* এটি  মুখ থেকে ব্রণের প্রকোপ কমাতে সাহায্য করে।

* মুখের মসৃণতা বৃদ্ধি করে।

*আপনার ত্বককে গভীর থেকে উজ্জ্বল করে তোলে।

অ্যালোভেরার উপকারিতা
অ্যালোভেরার উপকারিতা

* ত্বকের পোড়া দাগ  কমাতে সাহায্য করে।

* সর্বোপরি আপনার মুখের তৈলাক্ত ভাব দূর করে।

মিশ্রণ ৩ঃ

২ টেবিল চামচ অ্যালোভেরা জেল, সঙ্গে ২ টেবিল চামচ ওটমিল গুঁড়া ও ১  চামচ চিনি মিশিয়ে মিশ্রণ তৈরী করোন।

ব্যবহারবিধিঃ

উপরে উল্লেখিত ব্যবহার বিধি অনুসরণ করুন। আরো ভালো এবং কার্যকরী ফলাফল পেতে চাইলে আমাদের অ্যালোভেরা ফেসপ্যাক মুখে ব্যবহারের নিয়ম সংক্রান্ত কলাম টি পড়ে নিন।

অ্যালোভেরা ও মধুর সাহায্যে ঠোঁট গোলাপি করার উপায়

তৈলাক্ত ত্বকে ফেসপ্যাকটি ব্যবহারের উপকারিতাঃ

*এটি মুখের বলিরেখা দূর করতে সাহায্য করবে।

*আপনার ত্বকের অতিরিক্ত তৈলাক্ত ভাব দূর করবে।

*ব্ল্যাকহেডস এবং হোয়াইটহেডস দূর করতেও সাহায্য করবে।

এলোভেরার ৭টি হেয়ারপ্যাক

মিশ্রণ ৪ঃ

মুলতানি মাটির সঙ্গে  অ্যালোভেরা জেল মিশিয়ে খুব সহজেই ফেসপ্যাক তৈরি করতে পারেন।

ব্যবহারবিধিঃ

ফেসপ্যাক ব্যবহারের পূর্বে আপনার মুখ ভালোভাবে পরিষ্কার করে ধুয়ে নিন। মিশ্রণটি তোলা বা ব্রাশের সাহায্যে নিয়ে কোমল ভাবে আপনার তৈলাক্ত ত্বকে মালিশ করোন। এবং শুকানোর জন্য পর্যাপ্ত সময় দিয়ে ধুয়ে নিন।

ত্বক ফর্সা করার উপায়

তৈলাক্ত ত্বকে অ্যালোভেরার ফেসপ্যাকটি যে প্রভাব ফেলবেঃ

*ত্বকের  তৈলাক্ত ভাব দূর করে ত্বককে উজ্জ্বল করবে।

*ত্বকে বিদ্যমান বিভিন্ন দাগ এবং ব্যাকটেরিয়া দূর করবে।

সতর্কীকরণঃ

*অপ্রাপ্তবয়স্কদের এলোভেরা ব্যবহার করতে দিবেন না।

*আপনার এলোভেরা সমস্যা থাকলে সরাসরি এলোভেরা মুখে ব্যবহার না করে, শরীরের অন্য জায়গায় ব্যবহার করে দেখুন।

অ্যালোভেরা জেলের উপকারিতা
অ্যালোভেরা জেলের উপকারিতা

*কাটার পর এলোভেরা সরাসরি মুখে না লাগিয়ে কিছুক্ষণ অপেক্ষা করুন। এর ফলে এলোভেরার কাটার স্থান থেকে কিছু হলুদ রঙের জলীয় পদার্থ বের হবে। তা পরিস্কার কোন কিছু দিয়ে মুছে নিন। অন্যথায় অনেক সময়ই এই হলুদ নির্যাস আপনার ত্বকের জন্য এলার্জির কারণ হতে পারে।

নিজেদের  তৈলাক্ত ত্বক নিয়ে আমরা কমবেশি সকলেই খুব বেশী চিন্তিত। কারণ এই তোকে একটু বাড়তি যত্নের প্রয়োজন হয়। তাই ত্বকের যত্নে আমাদের এই উপরোক্ত মিশ্রণ গুলো ব্যবহার করে সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক উপায়ে নিজের তৈলাক্ত ত্বকের যত্ন নিন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here